শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৭ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ জুন, ২০২১ ২৩:৫০

দ্বিতীয় বিয়ে মেনে না নেওয়ায় স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রংপুর

Google News

রংপুরের পীরগাছায় স্বামীর দ্বিতীয় বিয়ে মেনে না নেওয়ায় প্রথম স্ত্রীকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল দুপুরে উপজেলার তাম্বুলপুর ইউনিয়নের পশ্চিমদেবু (আমডারা) গ্রামের রাজমিস্ত্রি রাজু মিয়ার বাড়ি থেকে দুই সন্তানের জননী ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে স্বামীর বাড়ির লোকজন পলাতক রয়েছেন। নিহত গৃহবধূ আছমা বেগম (২৮) ওই গ্রামের রাজমিস্ত্রি রাজু মিয়ার স্ত্রী। পুলিশ ও নিহতের স্বজনদের সূত্রে জানা গেছে, ১৫ বছর  আগে পীরগাছা সদরের পশ্চিম সুখানপুকুর গ্রামের মৃত আবদুল বাতেনের মেয়ে আছমা বেগমের সঙ্গে বিয়ে হয় পাশর্^বর্তী তাম্বুলপুর ইউনিয়নের পশ্চিমদেবু (আমডারা) গ্রামের সুলতান মিয়ার ছেলে রাজমিস্ত্রি রাজু মিয়ার। তাদের ঘরে দুটি সন্তান রয়েছে। এদিকে রাজু মিয়া তার সম্বন্ধী মমিনুল ইসলামের স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে দুই মাস আগে বিয়ে করেন। এ নিয়ে প্রথম স্ত্রী ও স্বামীর মধ্যে কলহ চলছিল। কয়েক দিন আগে প্রথম স্ত্রী রাগ করে বাবার বাড়ি চলে যান। গত বৃহস্পতিবার রাজু মিয়ার মা তবিরন নেছা তাকে ফিরিয়ে নিয়ে আসেন। গতকাল স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়ার পর রাজু মিয়া স্ত্রী অসুস্থ ডাক্তার আনার কথা বলে বাড়ি থেকে বেড়িয়ে যান। পরে বাড়ির লোকজন তার ঘরে ঢুকে বিছানার ওপর শোয়া অবস্থায় আছমা বেগমের মরদেহ দেখতে পায়। নিহতের গলায় দাগ রয়েছে। পরে বাড়ির অন্য লোকজন কৌশলে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পীরগাছা থানা পুলিশ নিহত আছমা বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেলের মর্গে পাঠিয়েছে।

নিহতের বোন ইসমত আরা বলেন, ‘দ্বিতীয় বিয়ে মেনে না নেওয়ায় আমার বোনকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। আমি এর সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করছি। ঘটনার পর রংপুরের সহকারী পুলিশ সুপার আরমান হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

এ বিষয়ে পীরাগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজিজুল ইসলাম বলেন, নিহতের ভাই আবদুর রউফ মিয়া বাদী হয়ে মামলা করেছেন। আসামি গ্রেফতারে জোর চেষ্টা চলছে।

এই বিভাগের আরও খবর