শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ৬ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৫ মার্চ, ২০২১ ২৩:১৯

সৌদির প্রথম নারী পাইলট

শনিবারের সকাল ডেস্ক

সৌদির প্রথম নারী পাইলট

সৌদি আরবের ধূসর মরুর বুকে গড়ে ওঠা সুরম্য অট্টালিকা, কর্মব্যস্ত নগর-চত্বর, বিলাসবহুল সব হোটেল কিংবা রাজকীয় প্রাসাদ সবই হয়েছে। তার পরেও যেন কি ‘নেই’। কিন্তু এই ‘নেই’ এখন পরিপূর্ণ হচ্ছে। সৌদি আরব পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যাওয়ার আরও একধাপ এগিয়ে গেল নারীদের কর্মক্ষেত্রে কাজের সুযোগ বাড়ানোর মধ্য দিয়ে। এরই অংশ হিসেবে এক নারী দেশটিতে বাণিজ্যিক বিমানের প্রথম নারী পাইলট হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছেন ২০১৯ সালের মাঝামাঝিতে। তাঁর নাম ইয়াসমিন আল মিয়ামানি। বিমান চালানোর লাইসেন্স পাওয়ার ছয় বছর পর বাণিজ্যিক বিমান চালানোর অনুমতি পেলেন মিয়ামানি। মিয়ামানি বিমান চালানোর লাইসেন্স পাওয়ার ছয় বছর পর বাণিজ্যিক বিমান চালানোর অনুমতি পান। ২০১৯ সালের ৯ জুন দেশটির নেসমা এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট সৌদি আরবের হেইল থেকে আল কাশিম এলাকায় নিয়ে যান ইয়াসমিন আল মিয়ামানি। ওই দিনই সৌদির ইতিহাসে প্রথম নারী হিসেবে বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনা করেন তিনি। তুবাক এলাকা থেকে আবার হেইলে ফেরেন ইয়াসমিন আল মিয়ামানি। আর এ দিন ঐতিহাসিক এ অর্জনের পর এক ইনস্টাগ্রাম পোস্টে নিজের আনন্দের কথা জানিয়েছেন ইয়াসমিন। একটি বিমানের ককপিটে বসা অবস্থায় একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, ‘আল্লাহকে ধন্যবাদ, আজ আমার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে।’ উড়োজাহাজের ককপিটে, উড়োজাহাজ উড়ানোর ছবি ও ভিডিও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন তিনি। বৈমানিক হিসেবে জর্ডান থেকে যোগ্যতা অর্জন করার পর যুক্তরাষ্ট্রে ৩০০ ঘণ্টা বিমান ওড়ানোর রেকর্ড গড়েন ২৯ বছর বয়সী ইয়াসমিন আল মিয়ামানি। ইয়াসমিন নেসমা এয়ারলাইনসের ফার্স্ট অফিসার হিসেবে নিয়োগ পান। এ বিমান সংস্থাটি সৌদি আরব ও মিসরের বিভিন্ন স্থানে ফ্লাইট  পরিচালনা করে থাকে।


আপনার মন্তব্য