Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১২:৩৭
আপডেট : ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬ ১৪:২৪

কে হচ্ছেন ব্লাটারের উত্তরসূরি?

অনলাইন ডেস্ক

কে হচ্ছেন ব্লাটারের উত্তরসূরি?

চরম আর্থিক কেলেঙ্কারিতে সমালোচনার মুখে পড়া বিশ্ব ফুটকলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার বহু প্রতীক্ষিত নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অাজ সুইজারল্যান্ডের জুরিখে অনুুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আর্থিক কেলেঙ্কারির অভিযোগে বরখাস্ত হওয়া বর্তমান প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটারের উত্তরসূরি নির্বাচনের লক্ষ্যে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ২০৭ জন ডেলিগেট শহরটিতে জড়ো হয়েছেন। নতুন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের লক্ষ্যে ভোটদান প্রক্রিয়া জিএমটি ১২টায় [বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টা] শুরুর কথা রয়েছে।

দুর্নীতির অভিযোগে তিন মাসের জন্য বহিষ্কার হওয়ার আগ পর্যন্ত সুইস নাগরিক ব্লাটার ১৯৯৮ সাল থেকে ফিফার ক্ষমতার মূল কেন্দ্রে ছিলেন। তবে ব্যাপক অার্থিক অনিয়মের অভিযোগে সমালোচনার মুখে গত বছরই প্রেসিডেন্টের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন তিনি।
ব্লাটারের উত্তরসূরি হওয়ার লক্ষ্যে আজকের নির্বাচনে অাফ্রিকা, ইউরোপ ও মধ্যপ্রাচ্যের পাঁচজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তারা হলেন জর্ডানের প্রিন্স আলী বিন অাল হোসেইন, ফ্রান্সের জেরম শাম্পানিয়ে, সুইস জিয়ান্নি ইনফানতিনো, বাহরাইনের শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম আল খলিফা ও দক্ষিণ অাফ্রিকার টোকিও স্যাক্সওয়েল।

৫ প্রার্থীর সংক্ষিপ্ত পরিচিতি :
প্রিন্স আলী বিন আল হোসেইন : ৪০ বছর বয়সী প্রিন্স আলী জর্ডান ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের বর্তমান প্রেসিডেন্ট।
জেরম শাম্পানিয়ে : ফরাসি এই নাগরিক ফিফার সাবেক একজন নির্বাহী। তার বয়স ৫৭।
জিয়ান্নি ইনফানতিনো : সুইস নাগরিক জিয়ান্নি ইউরোপীয়ান ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা উয়েফার বর্তমান মহাসচিব। ব্লাটারের উত্তরসূরি হওয়ার ক্ষেত্রে তিনি ভালো অবস্থানে আছেন।
শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম অাল খলিফা : এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের বর্তমান প্রেসিডেন্ট বাহরাইনের এই নাগরিক। তার বয়স ৫০।
টোকিও স্যাক্সওয়েল : দক্ষিণ আফ্রিকা সরকারের সাবেক মন্ত্রী টোকিও একজন ব্যবসায়ী। তার বয়স ৬২।

কে হচ্ছেন ব্লাটারের সম্ভাব্য উত্তরসূরি :
সেপ ব্লাটারের উত্তরসূরি হওয়ার লড়াইয়ে এগিয়ে আছেন শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম আল খলিফা। কারণ এশিয়ান ও আফ্রিকান ফুটবল ফেডারেশন তাকে পুরো সমর্থন দিচ্ছে। আফ্রিকান ফুটবল ফেডারেশনের বেশির ভাগ সদস্য দেশ-ই তাকে ভোট দিবে বলে মনে করা হচ্ছে।  
তবে সুইস জিয়ান্নি ইনফানতিনো তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছেন। উয়েফার সভাপতির পদ থেকে ফরাসি মিশেল প্লাতিনির বহিষ্কার হওয়ার পর তিনিই ইউরোপীয় ফুটবলের কর্তা হিসেবে আবির্ভূত হন। সাম্প্রতিক সময়ে ফুটবল বিশ্বে তার জনপ্রিয়তা বেড়েছে। খবর বিবিসির

বিডি-প্রতিদিন/২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৬/শরীফ


আপনার মন্তব্য