শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০১

শিল্প খাতের সঙ্গে শিক্ষার সমন্বয় জরুরি : শিক্ষামন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

শিল্প খাতের সঙ্গে শিক্ষার সমন্বয় জরুরি : শিক্ষামন্ত্রী

দেশের শিল্প খাতের সঙ্গে শিক্ষার সমন্বয় বাড়ানো প্রয়োজন বলে মনে করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। তিনি দেশের কারিগরি ও প্রযুক্তিভিক্তিক শিক্ষাব্যবস্থার আমূল পরিবর্তনের ওপর জোর দিয়েছেন। মন্ত্রী বলেন, ‘বৈশি^ক প্রতিযোগিতার বাজারে টিকে থাকার জন্য শিক্ষা ও শিল্প খাতের বিদ্যমান মানসিকতা পরিবর্তন করতে হবে। নতুন পরিস্থিতি মোকাবিলায় নিজেদের দক্ষ করে তুলতে হবে।’ গতকাল প্রাচীন বাণিজ্য সংগঠন ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) আয়োজিত ‘শিল্প-শিক্ষা খাতের সমন্বয় : নতুন সম্ভাবনার দিগন্ত’ শীর্ষক ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ। মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ও ডিসিসিআইর সাবেক সভাপতি ড. মো. সবুর খান। স্বাগত বক্তব্য দেন ডিসিসিআই সভাপতি রিজওয়ান রাহমান। এ ছাড়া বক্তব্য রাখেন এপেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ নাসিম মঞ্জুর, বুয়েটের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান তালুকদার, মেঘনা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজের পরিচালক তাহমিনা বিনতে মোস্তফা, ঢাকা চেম্বারের ঊর্ধ্বতন সহসভাপতি এন কে এ মবিন প্রমুখ।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, বাণিজ্যিকভাবে গ্রহণযোগ্য টেকসই গবেষণা কার্যক্রমে শিল্প খাতকে সহযোগিতার মনোভাব নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে। এ ধরনের কার্যক্রমে বেসরকারি বিনিয়োগ একান্ত অপরিহার্য, যার মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ শিল্প খাতের প্রয়োজনমাফিক শিক্ষা কারিকুলাম প্রস্তুতের পাশাপাশি দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে সক্ষম হবে। তিনি দুই খাতের বিদ্যমান দূরত্ব কমিয়ে আনার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি বলেন, শিল্প খাতের দক্ষ মানবসম্পদের প্রয়োজনীয়তার বিষয়টিকে প্রাধান্য দিয়ে একটি ম্যাপিং করা খুবই জরুরি।

ইউজিসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, শিক্ষা ও শিল্প খাতের মধ্যকার ব্যবধান অত্যন্ত বেশি, যা নিরসন এখন সময়ের দাবি। শিল্প খাতের প্রয়োজনের নিরিখে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করা সম্ভব হলে বিদেশ থেকে কর্মী নিয়োগ নিরুৎসাহিত হবে, যার মাধ্যমে স্থানীয় মেধাবীদের কাজের সুযোগ বাড়বে।

মূল বক্তব্যে ডিসিসিআই সাবেক সভাপতি ড. মো. সবুর খান বলেন, শিল্প খাতের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয়ের সুদৃঢ় সমন্বয় বজায় রাখা প্রয়োজন, যার মাধ্যমে শিল্প খাতের প্রয়োজনের নিরিখে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে সক্ষম হবে। সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যকার সর্বোত্তম চর্চা ও সাফল্যগুলো নিজেদের মধ্যে বিনিময় করা প্রয়োজন।

ঢাকা চেম্বারের সভাপতি রিজওয়ান রাহমান বলেন, ‘আমাদের প্রথাগত শিক্ষাব্যবস্থায় একজন শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ ডিগ্রি লাভের পরও শিল্প খাতে প্রয়োজনীয় দক্ষতার অভাবে চাকরি পেতে বেশ প্রতিকূলতার মুখোমুখি হন।’ বিশ্ববিদ্যালয়সমূহে কার্যকর গবেষণা কার্যক্রম বৃদ্ধির পাশাপাশি সময়োপযোগী শিক্ষা কারিকুলাম প্রণয়ন ও প্রবর্তনের আহ্বান জানান তিনি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর