শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ মার্চ, ২০২০ ২২:৪৩

নদী খননে পাল্টে যাচ্ছে জীবনযাত্রা

নাটোর প্রতিনিধি

নদী খননে পাল্টে যাচ্ছে জীবনযাত্রা

একপাশে দখল-দূষণে জীর্ণশীর্ণ মরা নদী অন্য পাশে বিল। নদী পাড়ের বসবাসরত পৌর নাগরিকদের ছিল না যাতায়াতের সুবিধা। পিছিয়ে পড়া এ জনগোষ্ঠী নাটোরের সিংড়া পৌর শহরের পরানহাটি মহল্লার নদী পাড়ের মানুষ। সম্প্রতি গুড়নই নদীর খনন শুরু হওয়ায় পাল্টে গেছে এলাকার সেই চিত্র। মরা নদীর  যেমন প্রাণ ফিরেছে তেমনি মাটি দিয়ে নদীর পাড় ভরাট করায় তৈরি হয়েছে নতুন রাস্তা। এই রাস্তায় স্বপ্ন দেখছে অবহেলিত পরানহাটি মহল্লাবাসী। তাদের দাবি রক্ষণাবেক্ষণের অভাবে যেন সড়কটি বিলীন হয়ে না যায়। সরেজমিনে দেখা যায়, সিংড়া পৌর শহরের পরানহাটি ও হাঁসপুকুরিয়ার মাঝে গুড়নই নদীতে এগিয়ে চলেছে খনন কাজ। বিলীন হয়ে যাওয়া নদীর পাড় মাটি দিয়ে ভরাট করে তৈরি করা হচ্ছে নতুন রাস্তা। রাস্তার অভাবে দীর্ঘদিনের দুর্ভোগের পর স্থানীয়দের মধ্যে ফিরেছে স্বস্তি। এ রাস্তা নির্মাণ হলে মহল্লার মানুষ সহজে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সিংড়া বাজারে যাতায়াতের সুবিধা পাবে। লাকার শিক্ষার্থীদের স্কুল-কলেজে যাতায়াতের কষ্ট লাঘব হবে। পাশাপাশি কৃষক পাবে সেচসুবিধা। পরানহাটি মহল্লার সাজ্জাদ হোসেন, শাহাদত হোসেন, আপেল মাহমুদ, সেলিম হোসেন জানান, আমাদের এলাকা অবহেলিত ছিল। এ এলাকায় রাস্তা নির্মাণ হলে আমরা স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা ও যাতায়াতে সুবিধা পাব। কৃষক মীর আহম্মেদ ও দেদার জানান, রাস্তা হলে পণ্য পরিবহন সহজ হবে। সিংড়া পৌর মেয়র জান্নাতুল ফেরদৌস বলেন, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নদী খননের মাধ্যমে রাস্তার কাজ অনেকটা এগিয়ে নেওয়া হয়েছে। পরানহাটি মহল্লার জনগনের স্বার্থে দখলদারদের কাছ থেকে নদীরপাড় দখলমুক্ত করে নাগরিকদের দুর্ভোগ কমাতে রাস্তাটি নির্মাণ করা হচ্ছে।


আপনার মন্তব্য