শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ ডিসেম্বর, ২০২০ ২৩:১১

সরকারি গুদাম দখল করে অফিস বানালেন যুবদল সভাপতি

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

সরকারি গুদাম দখল করে অফিস বানালেন যুবদল সভাপতি

আদিতমারী উপজেলায় সরকারি গুদাম দখল করে অফিস ও দোকান বানিয়েছেন নূর আলম নামে এক যুবদল নেতা। এ বিষয়ে আদিতমারীর ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। অভিযুক্ত নূর আলম ওই উপজেলার মহিষখোচা ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি। জানা গেছে, আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা বাজারে খাদ্য মজুদ রাখার জন্য একটি এলএসডি গুদাম নির্মাণ করা হয়। গুদামটি দীর্ঘদিন ব্যবহার না হওয়ায় গুদামের মাঠ দখল করে ছয়টি দোকান নির্মাণ করেন ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি নূর আলম। দীর্ঘদিন ধরে এসব দোকান ভাড়া দিয়ে লাখ টাকা আয় করছেন তিনি। শুধু দোকানই নয়। সেখানে ওই যুবদল নেতার একটি অফিসও রয়েছে। ওই অফিস থেকেই ইউনিয়ন যুবদলের সব কার্যক্রম পরিচালনা করেন তিনি। এ ছাড়া সরকারি গুদাম, সড়ক, মাঠ ও জমি উদ্ধার করার দাবি জানিয়ে গত ১৩ ডিসেম্বর আদিতমারীর ইউএনওর কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন আজহার আলী মন্টু নামে স্থানীয় এক ব্যক্তি। আজহার আলী মন্টু বলেন, প্রায় ২০ বছর আগে গুদামের জমি দখলে নিয়েছেন যুবদল নেতা নূর আলম। সেই থেকে তিনি সরকারি গুদামটি ব্যক্তিগত স্বার্থে ব্যবহার করছেন।

আমি তার বিরুদ্ধে ইউএনওর কাছে অভিযোগ করেছি। গুদাম, মাঠ ও জমি দখলমুক্ত করার দাবি জানিয়েছি। নূর আলম বলেন, গুদামের বাইরের অংশ ফাঁকা ছিল। এ কারণে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানকে বলেই আমি অফিস ও দোকান নির্মাণ করেছি। প্রশাসন চাইলে জায়গা ছেড়ে দেব। মহিষখোচা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক হোসেন চৌধুরী বলেন, গুদামের মাঠ ও পাশের খোলা জায়গা অনেক দিন ধরেই দখল করে রেখেছেন যুবদল সভাপতি নূর আলম। তাকে অনেকবার জায়গা ছাড়তে বললেও তিনি শোনেননি। ইউএনও মুহাম্মদ মনসুর উদ্দিন বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে। শিগগিরই অভিযান চালিয়ে অবৈধ স্থাপনাগুলো উচ্ছেদ করা হবে। সরকারি সম্পদ কোনো ব্যক্তি অবৈধভাবে দখলে রাখতে পারবেন না।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর