শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ জুন, ২০২১ ২৩:৫১

বাংলাদেশ প্রতিদিনে সংবাদ

ছয় দিন পর তালা খুলল ইউনিয়ন পরিষদের

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

Google News

অবশেষে ভুরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়ন পরিষদের তালা খুলে দেওয়া হয়েছে। বিগত ৫ দিন ধরে পরিষদের তালা ঝুলিয়ে থাকার খবর বাংলাদেশ প্রতিদিনে প্রকাশিত হওয়ার পর গতকাল দুপুরের পর ইউনিয়ন পরিষদের তালা খুলে দিলেন ভুরুঙ্গামারী থানায় চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে করা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. জয়নুল ইসলামসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। ভুরুঙ্গামারী থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন জানান, থানার পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের তালা খুলে দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। তবে চেয়ারম্যানের পক্ষে মামলার ২নং আসামি ও ইউপি চেয়ারম্যানের ছোট ভাই রাশেদুর রহমান মুন চাবি দিয়ে পরিষদের সব কক্ষের তালা খুলে দেন।

এর আগে দীর্ঘ  ৫ দিন ভুরুঙ্গামারী সদর ইউনিয়ন পরিষদ বন্ধ থাকার বিষয়ে বাংলাদেশ প্রতিদিনে সংবাদ প্রকাশিত হয়। পরে ইউএনও দীপক কুমার দেব আশ্বস্ত করেন শিগগিরই খুলে দেবেন ইউপি অফিস। পরে তিনি তালা খুলে দেন।

এ ব্যাপারে বর্তমান প্যানেল চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান জানান, বরখাস্ত হওয়া চেয়ারম্যানের বাধার কারণে প্রথম দফায় পরিষদের তালা খুলতে ব্যর্থ হলেও পরে পুলিশের সহায়তায় ২নং আসামি গতকাল পরিষদের কক্ষের তালা খুলে দেন। প্রসঙ্গত, মামলাজনিত কারণে চলতি বছর ১৭ জানুয়ারি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় ভুরুঙ্গামারী সদর ইউপি চেয়ারম্যান মাহমুদুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করেন। এরপর  প্যানেল চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছেন। বরখাস্তকৃত ওই চেয়ারম্যান এ ব্যাপারে হাই কোর্টে একটি রিট পিটিশন দাখিল করলে বিজ্ঞ আদালত চেয়ারম্যানের বরখাস্ত ৬ মাসের জন্য স্থগিত করেন। বরখাস্তের আদেশ আসার আগেই বরখাস্তকৃত চেয়ারম্যান তার  লোকজনসহ ইউনিয়ন পরিষদের তালা ঝুলিয়ে ৫ দিন ধরে সব কার্যক্রম বন্ধ করে দেন।

এই বিভাগের আরও খবর