রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা

সাত মাস ভাতা পাচ্ছেন না ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধা

কারণ জানে না সমাজ সেবা

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

সাত মাস ধরে ভাতা পাচ্ছেন না ঝালকাঠি জেলার ৫০ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা। এতে পরিবার নিয়ে চরম মানবেতর জীবনযাপন করতে বাধ্য হচ্ছেন তারা। বিশেষ করে অবসরপ্রাপ্ত বেকার এবং মুক্তিযোদ্ধা ভাতানির্ভর এই একাত্তরের বীর সন্তানরা। করোনা পরিস্থিতিতে পরিবার নিয়ে তারা এখন চরম হতাশায় ভুগছেন। ভাতা বন্ধ হওয়ার বিষয়ে জেলা প্রশাসকের বক্তব্যের সঙ্গে মিল নেই সংশ্লিষ্ট দফতর সমাজ সেবা কর্মকর্তার বক্তব্যে। জেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা কোনো কারণ জানাতে পারেননি। ভাতা বন্ধ হওয়া মুক্তিযোদ্ধারা জানান, অনেকের জীবন জীবিকার মূল উৎস মুক্তিযোদ্ধা ভাতা। গত জানুয়ারি মাস হতে তা হঠাৎ করে বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দিগি¦দিক হয়ে পড়েছেন তারা। দরিদ্র মুক্তিযোদ্ধারা অমানবিক জীবনযাপন করে আসছেন সাত মাস ধরে। ভাতা বন্ধ থাকার কারণে ঈদ করতে পারেননি অনেকেই। বিকল্প অর্থের জোগান না থাকায় কোরবানিতে আরও করুণ অবস্থায় পড়তে হয়েছে। ভাতা বন্ধ হওয়ার পর জেলা সমাজ সেবা অফিসে গেলে তারা উপজেলা সমাজ সেবা অফিসে যেতে বলছেন। সেখান থেকে জেলা প্রশাসকের অফিসে যেতে বলেন। সেখান থেকে আবার সমাজ সেবা অফিসে যেতে বলেন। এভাবে অফিস টু অফিস হন্যে হয়ে ঘুরতে থাকেন মুক্তিযোদ্ধারা। কারও কাছে কোনো সমাধান না পেয়ে চরম হতাশায় ভুগছেন তারা। এদের মধ্যে অনেকে জেলা প্রশাসক বরাবর আবেদন করলেও সমস্যার সুরাহা হয়নি। শিক্ষা বিভাগের একজন অবসরপ্রাপ্ত ডিজি ঝালকাঠির বীর মুক্তিযোদ্ধা খান হাবিবুর রহমান জানান, তিনিও গত সাত মাস ধরে ভাতা পাচ্ছেন না। ঝালকাঠি জেলা সমাজ সেবা অফিসের উপ-পরিচালক শাহপার পারভীন বলেন, যার যার অ্যাকাউন্টে টাকা যায়, সমাজ সেবার ভাতা বন্ধ করার কিছু নেই।

সর্বশেষ খবর