প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৪:৪১
আপডেট : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৪:৫০

নাটোর শহরের বাজার হঠাৎ পিয়াজশূন্য!

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোর শহরের বাজার হঠাৎ পিয়াজশূন্য!

নাটোর শহরের বাজারসমূহ হঠাৎ পিয়াজশুন্য হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার সকাল থেকে নাটোরের কোন বাজারে পিয়াজের আমদানি নেই। ফলে পিয়াজশুন্য হয়ে পড়েছে নাটোরের নিচাবাজার, স্টেশন বাজার ও গাড়িখানা বাজার।

ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, পুলিশসহ বাজার মনিটরিং কমিটির অভিযানের পর বাজারে পিয়াজ সরবরাহ নেই। এছাড়া গৃহস্থরাও অভিযান আতংকে বাজারে পিয়াজ আনছেন না। পিয়াজ না পেয়ে ক্রেতারা ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে ফিরে যান। পিয়াজের সরবরাহ নিশ্চিতসহ দাম দ্রুত ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে আনতে সরকারের সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভোক্তারা।

নাটোরের সবচেয়ে বড় বাজার নিচাবাজার, স্টেশন বাজার ও গাড়িখানা বাজারে আজ সকাল থেকে পিয়াজের আমদানি নেই। কোন গৃহস্থ বাজারে পিয়াজ নিয়ে আসেননি। ফলে বাজারসমূহ পিয়াজশুন্য হয়ে পড়েছে। অধিকাংশ দোকানী পিয়াজ ছাড়াই ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রেখেছেন। আমদানি না হওয়ায় তারা পিয়াজ বিক্রি করতে পারছেন না। যাদের মজুদ ছিল তাদের পিয়াজ মুহূর্তে শেষ হয়ে গেছে। আমদানি হলে তারা দোকানে পিয়াজ তুলবেন। 

নিচাবাজারের ব্যবসায়ী আইচান আলী, মোহম্মদ সেলিম, আকবর আলী বলেন, তাদের সামান্য পরিমানের মজুদ পিয়াজ স্থানীয় প্রশাসনের বেধে দেয়া দাম ১৬০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করেছেন। ক্রেতাদের চাপ বাড়ায় যে পরিমান পিয়াজ ছিল তা মুহূর্তে শেষ হয়ে যায়। ক্রেতারা জানান, তারা মঙ্গলবার বাজারে এসে পিয়াজ না পেয়ে ফিরে যাচ্ছেন। অন্যান্য বাজারেও একই অবস্থা।

নিচাবাজারের আড়তদার মোহম্মদ বাবু বলেন, পুলিশসহ বিভিন্ন সংস্থা বাজারে অভিযান চালানোর পর বাজারে পিয়াজ আনছেন না কেউ। ফলে পিয়াজশুন্য হয়ে পড়েছে। ক্রেতাদের অনেকেই পিয়াজ না পেয়ে ফিরে গেছেন। যাদের কাছে মজুদ রয়েছে তারা প্রশাসনের বেধে দেয়া প্রতিকেজি ১৬০ টাকা দামেই বিক্রি করছেন।

জেলা প্রশাসক মোহম্মদ শাহরিয়াজ বলেন, ব্যবসায়ীরা যাতে সহনীয় দামে পিয়াজ বিক্রি করে সেজন্য তাদের অনুরোধ করা হয়েছে। নাটোরের বাজারসমূহে বর্তমানে কোন ধরনের অভিযান চালানো হচ্ছেনা। তিনি পাইকারী এবং খুচরা ব্যবসায়ীরা যাতে নির্ভয়ে পিয়াজ বিক্রি করতে পারেন সে জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহায়তা করার আশ্বাস দেন। তবে ব্যবসায়ীদের প্রতি পিয়াজসহ সবধরনের নিত্য পণ্য সহনীয় দামে বিক্রি করার আহ্বান জানান।

 

বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য