শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ১৯:৫৯

গুজবে দিনাজপুরে লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড

দিনাজপুর প্রতিনিধি

গুজবে দিনাজপুরে লবণ নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড

দিনাজপুরের বিভিন্ন এলাকায় লবনের দাম বৃদ্ধির গুজব নিয়ে লঙ্কাকাণ্ড ঘটেছে। শহরের উপশহর বাজার, হাউজিং মোড়, বাসস্ট্যান্ড কাঁচা বাজার, বাহাদুর বাজারসহ বিভিন্ন উপজেলায় মঙ্গলবার সকালের দিকে অনেক দোকানদার লবণ নাই বলে ক্রেতাদের ফিরিয়ে দেন। এরপরেই বিভিন্ন স্থানের দোকানে লবণ কেনার হিড়িক পড়ে যায়। আর সুযোগ কাজে লাগিয়ে কতিপয় দোকানদার লবণের কেজি একেকজন একেক রকম দাম হাকান। 

অসাধু ব্যবসায়ীরা এধরনের গুজবে মোটা অংকের টাকা ক্রেতাদের কাছ থেকে হাতানোর চেষ্টা করছে। এসব দূর করতে বাজার মনিটরিং জোরদার করার কথা বললেন সচেতন ভোক্তারা। 

এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসন জানায়, কিছু কুচক্রী মহল লবণের সংকট রয়েছে এবং দাম বেড়ে যাবে মর্মে গুজব ছড়াচ্ছে। বর্তমান সরকারের নিকট ৪ লাখ মেট্রিক্টন লবণ মজুদ আছে। সুতরাং এ বিষয়ে আতঙ্কিত না হবার জন্য সর্বসাধারণকে অনুরোধ করেছেন। 

মঙ্গলবার বীরগঞ্জ শহরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হয়। এসময় কয়েক বস্তা লবণ ক্রয় করে নেয়ার সময় তাদের দোকানে ফিরিয়ে দেয়া হয়। এ অভিযানে মান্নান স্টোরের মো. ফারুক হোসেন, জননী স্টোরের হাফিজুল ইসলাম ও মো. সাদ্দামকে আটক করে। 

এসময় মঙ্গলবার দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন বাজারে ভোক্তা অধিকার অনুসারে দ্রব্যমূল্য তদারিক সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রমিজ আলম বিভিন্ন বাজারে লবণ নিয়ে চলা গুজবে কান না দেওয়ার পরামর্শ দেন। তিনি বীরগঞ্জ পৌরশহরের জননী ষ্টোর ও সেতাবগঞ্জ রোডস্থ সেল্টু স্টোর পরিদর্শন করেন এবং ভোক্তাদের বলেন, লবন দেশে সঙ্কট হয়নি, অসাধু ব্যবসায়ীরা এই ধরনের গুজবে আপনাদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। 

অপরদিকে, বীরগঞ্জসহ বিভিন্ন গ্রামাঞ্চলের কিছু অসাধু ব্যবসায়ী বিভিন্ন অযুহাতে লবণের দাম বাড়ানো বিষয়ে গুজব ছড়িয়ে পদ্মা ও পালকি নামের প্রতি বস্তা লবন ৩২০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা দরে বিক্রি করতে দেখা গেছে। কিছু গ্রামাঞ্চলের বাজারে লবণের সঙ্কট দেখিয়ে ২০ টাকা কেজি দরের লবণ ৪০ থেকে ৬০ টাকা ধরেও বিক্রি করে।

বিডি প্রতিদিন/এনায়েত করিম


আপনার মন্তব্য