শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ২১:১৩

নওগাঁয় গুজবে লবণ কেনার হিড়িক, জরিমানা

নওগাঁ প্রতিনিধি:

নওগাঁয় গুজবে লবণ কেনার হিড়িক, জরিমানা

লবণ সংকট তৈরি হবে এমন গুজবে মঙ্গলবার নওগাঁর বিভিন্ন বাজারে লবণ কেনার হিড়িক পড়ে যায়। এই সুযোগে পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতারা বাড়িয়ে দেন লবণের বাজার। 

বিভিন্ন বাজারে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, একদিনের ব্যবধানে মঙ্গলবার লবণ কেজিতে খোলা ২০ থেকে ২৫ টাকা আর প্যাকেট ৩০ থেকে ৩৫ টাকা বেশি দামে বিক্রি হয়েছে। এদিকে বেশি দামে লবণ বিক্রি করার অভিযোগে বিকালে মহাদেবপুর উপজেলা সদর বাজারের এক পাইকারি লবণ বিক্রিতাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, পরিবহন ধর্মঘটের কারণে লবণের সরবরাহ কমে গেছে অথচ চাহিদা বেড়ে গেছে কয়েকগুণ বেশি। লবণ সংকট সৃষ্টি হবে এমন আতঙ্কে অনেক ক্রেতা ও ব্যবসায়ীদের মধ্যে বেশি করে লবণ ক্রয় করছেন। সরবরাহের তুলনায় চাহিদা বেশি হওয়ায় লবণের দাম বেড়ে গেছে।

বেশি দামে লবণ বিক্রি করার দায়ে মহাদেবপুরে আজ মঙ্গলবার বিকেলে এক পাইকারি বিক্রেতাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মিজানুর রহমান এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। তিনি জানান, বেশি দামে লবণ বিক্রি করার দায়ে আব্দুল কুদ্দুস নামে এক ব্যবসায়ীকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। কাগজপত্র পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায় ওই ব্যবসায়ী প্রতি বস্তা ৩৯৬ টাকায় লবণ কিনেছেন অথচ তিনি বিক্রি করছিলেন ৬০০ টাকা বস্তায়। ওই ব্যবসায়ী আদালতের কাছে স্বীকার করেন আজ সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত তিনি ৪৭০ টাকা বস্তায় লবণ বিক্রি করেছেন। 

ইউএনও মিজানুর রহমান বলেন, লবণের দাম বেড়ে যাবে এমন গুজব ছড়িয়ে পড়ায় লবণের বাজারে এই অস্থিরতা দেখা দিয়েছে। লবণের দাম বাড়ার কোন কারণ নেই। লোকজনকে গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান জানান তিনি।


বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য