Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
প্রকাশ : ২৭ জুন, ২০১৯ ১০:২৮

সালমান-আলিয়া জুটির নেপথ্যে

অনলাইন ডেস্ক

সালমান-আলিয়া জুটির নেপথ্যে

প্রচলিত নায়কোচিত ধারার বাইরে সর্বশেষ ‘ভারত’ ছবিতে বয়োবৃদ্ধ সালমান খান সকলের নজর কেড়েছেন। এবার অসম জুটি গড়ে আলিয়া ভাটের নায়ক হয়ে আরও একটি বড় চমক দেখাবেন তিনি। সঞ্জয় লীলা বানসালির পরিচালনায় ‘ইনশাল্লাহ’ ছবিতে প্রথম বার জুটি বাঁধছেন সালমান ও আলিয়া। তবে এ জুটির বয়সের তফাত নিয়ে সমালোচনা থাকলেও ছবির গল্পে তাদের একটুও বেমানান দেখাবে না।

কেননা, চিত্রনাট্য এমনভাবেই লেখা; যেখানে বয়সের ব্যবধানটা যুক্তিপূর্ণ। ‘ইনশাল্লাহ’ ছবিতে সালমননের চরিত্রটি এক মাঝবয়সি ব্যবসায়ীর। চরিত্রটির বয়স হলেও মনের দিক থেকে সে একজন তরুণ। দারুণ সুপুরুষ, স্টাইলিশ সানগ্লাস আর ডিজাইনের জ্যাকেট পরেই চরিত্রটিকে বেশি দেখা যাবে। তবে সে প্রেমে বা কমিটমেন্টে বিশ্বাস করে না। আলিয়ার চরিত্রটি আবার প্রেমে বিশ্বাসী ২০ বছরের তরুণীর, যে অভিনেত্রী হতে চায়। সালমানের বাবা তার সম্পত্তির মালিকানা ছেলেকে দিতে চায় একটি শর্তের বিনিময়ে, ছেলেকে প্রেমে পড়তে হবে। এই প্রেমের অভিনয় করার জন্যই আলিয়ার চরিত্রটির এন্ট্রি হয়। তার পরে দু’জন কী ভাবে মন দেওয়া-নেওয়া করে, সেটাই গল্পের সারমর্ম। সালমান-আলিয়া জুটির নেপথ্যে রয়েছে ‘ইনশাল্লাহ’ ছবির এই চিত্রনাট্য।

তবে এই গল্পের সঙ্গে অনেকেই মিল পাচ্ছেন সালমানের একটি পুরনো ছবির সঙ্গে। উর্মিলা মাতণ্ডকরের সঙ্গে সেই ছবির নাম ছিল ‘জানাম সামঝা কারো’। এই ছবিতেও সালমানের চরিত্রটি ধনী এবং উর্মিলা বার-গায়িকার ভূমিকায়। প্রেমের নাটক করতে গিয়েই তারা একে অপরকে ভালবেসে ফেলে। ‘ইনশাল্লাহ’ পুরনো ছবির অনুপ্রেরণাতেই বানানো কি না, সই জল্পনাও রয়েছে। 

জানা গেছে, বানসালি শুরুতেই আমেরিকার অরল্যান্ডো এবং মিয়ামির সমুদ্র সৈকতে ছবির লোকেশন ফেলবেন। সাধারণত এই নির্মাতার ছবি মানেই জাঁকজমকপূর্ণ বিরাট সেট। কিন্তু এ বার তিনি সেটে নয় ন্যাচারাল লোকেশনেই শুটিং করার কথা ভেবেছেন। ছবিটি একেবারেই তরুণ দর্শকের কথা ভেবে বানাতে চলেছেন বানসালি। সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য