শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:২০

পুলিশের হাতে আটকের পর নদীতে যুবকের লাশ

জামালপুর প্রতিনিধি

পুলিশের হাতে আটকের পর নদীতে যুবকের লাশ

দেওয়ানগঞ্জে পুলিশের হাতে আটকের পর রবিউল ইসলাম আপেল নামে এক যুবকের লাশ মিলেছে নদীতে। তাকে গত রবিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে পৌর এলাকা থেকে দেওয়ানগঞ্জ থানার এএসআই মোশারফ ও এএসআই মাসুদের নেতৃত্বে টহল পুলিশ দল আটক করেছিল। আপেলের পারিবারিক সূত্র জানিয়েছে, আটকের পর পরিবারকে জানানো হয় ওই রাতে আপেল পুলিশকে ফাকি দিয়ে নদীতে ঝাঁপ দেয়। পুলিশ জানায়, গতকাল সকালে নদীতে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি নামিয়ে আপেলের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার ব্যাপারে আপেলের বাবা টুনুসহ এলাকাবাসীর অনেকেই জানিয়েছেন, আপেলকে আটক করে পুলিশ টাকা দাবি করেছিল। টাকা না দেওয়ায় তাকে অমানুষিক নির্যাতন করা হয়। এতে তার মৃত্যু হলে লাশ নদীতে ফেলে দিয়ে পুলিশ নাটক সাজিয়েছে। অন্যদিকে পুলিশ এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। দেওয়ানগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) লুত্ফর রহমান দাবি করেন, আপেল মাদকসেবী ছিল। তার নামে দেওয়ানগঞ্জ থানায় মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে ৪টি মামলাও রয়েছে।

এদিকে লাশ উদ্ধারের পর বিক্ষুুব্ধ এলাকাবাসী দেওয়ানগঞ্জ থানা ঘেরাও করেন এবং আপেলকে হত্যার জন্য পুলিশকে দায়ী করেন। তারা দোষী পুলিশের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। বিক্ষোভের সময় বেশকিছু দোকানপাটও ভাঙচুর করা হয়।


আপনার মন্তব্য