Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ৯ জুন, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ জুন, ২০১৯ ০২:০৭

ম্যাচ বিশ্লেষণ

যে কারণে পরাজয় টাইগারদের

ক্রীড়া প্রতিবেদক, কার্ডিফ থেকে

যে কারণে পরাজয় টাইগারদের

একে তো সোফিয়া গার্ডেনের ব্যাটিংস্বর্গ, তার ওপর প্রতিপক্ষ দলটির নাম ইংল্যান্ড। এবারের আসরে সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ তাদের। কাল টস জিতে কিনা এ দলটিকেই ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় বাংলাদেশ! এই এক সিদ্ধান্তেই যেন লেখা হয়ে যায় টাইগারদের ভাগ্য! তারপর নির্বিষ বোলিং ও যাচ্ছেতাই ফিল্ডিং করে টাইগাররা। ৬ উইকেটে ৩৮৬ রানের পাহাড় গড়ে যেন প্রথম ইনিংসেই বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে দূরে সরিয়ে দেয় ইংল্যান্ড। তারপর সাকিব আল হাসানের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি ম্যাচের আকর্ষণ বাড়ালেও কখনো মনে হয়নি বাংলাদেশ জিততে পারে। ক্রিকেটারদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজেও উজ্জীবনী ভাব ছিল না। তাই সংবাদ সম্মেলনে এসে হতাশা প্রকাশ করেন সাকিব, ‘আমি অবশ্যই হতাশ। আমরা দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে যেভাবে খেলেছি সেভাবে ব্যাটিং করতে পারিনি। এর চেয়েও ভালো ক্রিকেট খেলার সামর্থ্য আমাদের আছে। তবে ইংল্যান্ড খুবই ভালো খেলেছে। বিশেষ করে ওদের ওপেনাররা দারুণভাবে শুরু করেছে। তারপর শেষের দিকে বাটলার দ্রুত রান তুলেছে। এই জয়ের জন্য তাদের কৃতিত্ব দিতেই হবে।’

টস নিয়ে সাকিবের বক্তব্য, ‘টসের বিষয়টি আমার সিদ্ধান্ত নয়, দলীয়ভাবেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে কখনো সিদ্ধান্ত ভালো হবে, কখনো বা হবে না। এটাই স্বাভাবিক।’

তবে ৩৮৭ রানের টার্গেটেও জয়ের কথা ভেবেছিলেন সাকিব, ‘এটা খুবই কঠিন। ৩২০ কিংবা ৩৩০ হলে ভালো ছিল। তার পরও আমি ভেবেছিলাম প্রথম ৩০ ওভারে যদি ২০০ রান হয়, তারপর ২০ ওভারে টি-২০ ম্যাচ খেলব। উইকেট হাতে থাকলে অসম্ভব ছিল না।’ তবে এখনো সেমিফাইনালে খেলার ব্যাপারে আশাবাদী সাকিব, ‘সেমিফাইনালে খেলতে হলে পাঁচ থেকে ছয়টি ম্যাচ জিততে হবে।’

বিশ্বকাপে প্রথম সেঞ্চুরি করেছেন সাকিব। তিন ম্যাচে ২৬০ রান নিয়ে সবার ওপরে। আর কার্ডিফের এই সোফিয়া গার্ডেনে দুই ম্যাচে ২ শতক। প্রতিক্রিয়ায় সাকিব বলেন, ‘খুবই ভালো লাগছে। আমি বেশ উপভোগ করছি। তবে দল জিতলে খুবই ভালো লাগত।’


আপনার মন্তব্য