Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:৫৯

সাক্ষাৎকারে আছাদুজ্জামান মিয়া

জাতীয় নিরাপত্তায় থাকবে দৃষ্টি

আলী আজম

জাতীয় নিরাপত্তায় থাকবে দৃষ্টি

জাতীয় নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বাধীন ‘নিরাপত্তা সংক্রান্ত জাতীয় কমিটি’-কে সার্বিক সহায়তা দিতেই গঠিত হয়েছে ‘জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সেল’। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অধীন এ সেলটি দেশের সব ধরনের নিরাপত্তা নিশ্চিত ও প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানে কাজ করবে। যেখানে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাবে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি। এমনকি দেশের নিরাপত্তা সংক্রান্ত যে কোনো সমস্যার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেবে এ সেল। প্রয়োজনে মন্ত্রিসভার বিবেচনার জন্য সুপারিশ প্রণয়ন করবে। জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সেলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. আছাদুজ্জামান মিয়া গতকাল এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, নিরাপত্তা সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক প্রধানমন্ত্রী। তিনি যখনই কল করেন, ঠিক তখনই এই সেলের মিটিং হবে। জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত যে কোনো কাজের জন্য বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার রিপোর্ট, সেলের নিজস্ব রিপোর্ট এবং বিভিন্ন সংস্থার রিপোর্ট সংগ্রহ করা হবে। পরে তা সমন্বয় করে কমিটির কাছে উপস্থাপন করা হবে। সে অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নেবে কমিটি। মূলত এই সেল কমিটিকে সাচিবিক সহায়তা দেবে।

আছাদুজ্জামান মিয়া আরও বলেন, যারা নাশকতা করে দেশকে অস্থিতিশীল করতে চায়, সরকারের চলমান উন্নয়ন কর্মকা কে ব্যাহত করতে চায়, তাদের ব্যাপারে গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ করা হবে। এরপর নিরাপত্তা সংক্রান্ত জাতীয় কমিটির কাছে তা উপস্থাপন করা হবে। এরপর সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত হবে এবং মাঠপর্যায়ে তা বাস্তবায়ন করা হবে। বিশেষ দৃষ্টি থাকবে জাতীয় নিরাপত্তায়। এর মাধ্যমে আমরা একটি নিরাপদ ও বিনিয়োগ পরিবেশ তৈরি করতে সক্ষম হব।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই সেলের অফিস করা হয়েছে। রবিবার থেকে অফিস করছি। আমি যোগদানের সঙ্গে সঙ্গে এই সেলের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ১৯ সেপ্টেম্বর এই সেলের প্রথম সভা হবে। জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সেলের সদর দফতর হবে রাজধানীর নাখালপাড়া ন্যামভবনে।

জানা গেছে, চলতি বছরের ১১ জুলাই সরকারের প্রশাসনিক উন্নয়নসংক্রান্ত সচিব কমিটির সভায় ‘জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সেল’ গঠনের সিদ্ধান্ত হয়। প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে আটজন এ সেলে কাজ করবেন। তাদের মধ্যে একজন স্টাফ অফিসার থাকবেন। যিনি সিনিয়র সহকারী সচিব বা সহকারী সচিব পদমর্যাদার হবেন। থাকবেন একজন ব্যক্তিগত কর্মকর্তা, কম্পিউটার অপারেটর, অফিস সহায়ক ও তিনজন গাড়িচালক। প্রতিষ্ঠানটির জন্য কেনা হয়েছে তিনটি গাড়ি।

২২ মে প্রধানমন্ত্রীকে আহ্বায়ক করে ২৯ সদস্যের নিরাপত্তা সংক্রান্ত জাতীয় কমিটি পুনর্গঠন করা হয়। এই কমিটির চার দফা কার্যপরিধি রয়েছে। এগুলো হচ্ছে- দেশের নিরাপত্তা এবং প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় সমস্যাবলি ও কার্যক্রমের পুনরীক্ষণ; দেশের অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তাজনিত পরিস্থিতির মূল্যায়ন ও পুনরীক্ষণ; দেশের নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়াদির ওপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ প্রদান ও প্রয়োজনবোধে মন্ত্রিসভার জন্য সুপারিশ প্রণয়ন এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য বিষয়াদি।

প্রসঙ্গত, মো. আছাদুজ্জামান মিয়াকে গত ৩ সেপ্টেম্বর জাতীয় নিরাপত্তা সংক্রান্ত সেলের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) পদে তিন বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয় সরকার। এর আগে তিনি ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার পদে কাজ করেন প্রায় পৌনে পাঁচ বছর।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর