শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৯ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ মার্চ, ২০২০ ২৩:৩১

সহায়তায় আইন প্রয়োগকারী সংস্থা

সংবাদপত্রের গাড়ি নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

সংবাদপত্র ও সংবাদকর্মী বহনকারী যানবাহন আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সরকারি সাধারণ ছুটি বা নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে। ফলে জরুরি সেবা হিসেবে সংবাদপত্রের গাড়ি সারা দেশে অবাধে চলাচল করতে পারবে।

এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে পুলিশ সদর দফতরের এআইজি (মিডিয়া) মো. সোহেল রানা বলেন, জরুরি দায়িত্ব পালনে নিয়োজিত প্রতিষ্ঠানের ব্যক্তি ও যানবাহন অবাধ চলাচল নিশ্চিত করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সংবাদপত্র, ওষুধ, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী, খাদ্য, বিদ্যুৎ, ব্যাংকিং ও মোবাইল ফোন সেবার মতো জরুরি সেবার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি ও যানবাহন চলাচলে কোনো বাধা নেই। র‌্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল সারওয়ার-বিন-কাশেম বলেন, জরুরি দায়িত্ব পালনে নিয়োজিত সাংবাদিক, চিকিৎসক, নার্স, চিকিৎসা সহকারী ও টেকনিশিয়ান, সিটি করপোরেশনের কর্মীদের সঙ্গে বিশেষ যত্নশীল হওয়ারও নির্দেশনা ইতিমধ্যে দেওয়া আছে। সংবাদপত্র বহনকারী যানবাহন চলাচলে কোনো বাধা নেই বলেও জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা। এর আগে ২৩ মার্চ এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রামণ ঠেকাতে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বা বন্ধের ঘোষণা দেন। পরদিন এ সংক্রান্ত একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে বলা হয়, সংবাদপত্র ও জরুরি পরিবহন এর আওতায় পড়বে না। প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, এই ছুটি শুধুমাত্র সরকারি-বেসরকারি অফিস আদালতের জন্য প্রযোজ্য। তবে স্বাস্থ্যসেবা, সংবাদপত্র ও অন্যান্য জরুরি কার্যাবলির ক্ষেত্রে এই নির্দেশনা প্রযোজ্য নয়। এতে আরও বলা হয়, গণপরিবহন ব্যতীত অন্যান্য জরুরি পরিবহন যেমন ট্রাক, কার্গো, অ্যাম্বুলেন্স ও সংবাদপত্রবাহী গাড়ি যথারীতি চলবে। সেই সঙ্গে ওষুধ, খাদ্য প্রস্তুত শিল্প কারখানা, বাজার ও দোকানপাটের গাড়ি নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় চলবে। এদিকে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে দায়িত্ব¡ পালনকালে জনসাধারণের সঙ্গে সহনশীল, বিনীত ও পেশাদার আচরণ করতে বলেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) মোহাম্মদ জাভেদ পাটোয়ারী। শুক্রবার এক বার্তায় তিনি জরুরি সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ও সেবায় নিয়োজিত যানবাহনের অবাধ চলাচল নিশ্চিত করার নির্দেশনা দিয়েছেন অধস্তনদের।


আপনার মন্তব্য