শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২১ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ মার্চ, ২০১৯ ২৩:১৬

এমপিদের বিরুদ্ধে আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

তৃতীয় ধাপে ১১৯ উপজেলায় নির্বাচন ২৪ মার্চ

গোলাম রাব্বানী

এমপিদের বিরুদ্ধে আচরণ বিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ

আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠেয় তৃতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে এমপিদের বিরুদ্ধে। কাল মধ্যরাতে এ ধাপের ১১৯ উপজেলায় প্রচার-প্রচারণা শেষ হবে। এমপিরা অচরণবিধি ভঙ্গ করেই নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন বলে ইসির কাছে লিখিত অভিযোগ করছেন প্রার্থীরা। তবে নির্বাচন কমিশন (ইসি) নামে মাত্র এলাকা ছাড়ার নির্দেশনা দিচ্ছে। এর আগে প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপেও ১১ জন এমপির বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল।

তৃতীয় ধাপে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠেছে আওয়ামী লীগের যশোর-৪ আসনের এমপি রণজিত কুমার রায়, নরসিংদী-৫ আসনের রাজিউদ্দিন আহমেদ, কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের আফজাল হোসেন ও লক্ষ্মীপুর-২ আসনের (স্বতন্ত্র) এমপি শহীদ ইসলামের বিরুদ্ধে। সংশ্লিষ্ট উপজেলার প্রার্থীরা তাদের বিরুদ্ধে নির্বাচন কমিশনে লিখিত অভিযোগ করেছেন। ইসির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ২৪ মার্চ অনুষ্ঠেয় লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলা নির্বাচনে  প্রভাব বিস্তারের অভিযোগ উঠেছে এমপি শহীদ ইসলামের বিরুদ্ধে। নির্বাচনী প্রচারণা থেকে বিরত রাখতে ইসির কাছে লিখিত আবেদনও করেছেন এক ব্যক্তি। কিশোরগঞ্জ-৫ আসনের এমপি আফজাল হোসেনের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ তুলেছেন বাজিতপুর উপজেলার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মোবারক হোসেন (আনারস)। লিখিত অভিযোগে তিনি বলেছেন, ‘সংসদ সদস্যের সন্ত্রাসী বাহিনী আমার নেতা-কর্মীদের ভায়ভীতি দেখাচ্ছে। আমার অফিস ভাঙচুর করেছে। তিনি নির্বাচনী এলাকায় অবস্থান করে সভা-সমাবেশ করছেন এবং নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন।’ তাই এ সংসদ সদস্যকে নির্বাচনী এলাকা ছাড়ার নির্দেশনা দিতে ইসির প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। এদিকে যশোর-৪ আসনের এমপি রণজিত কুমার রায়ের বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করেছেন বাঘারপাড়া উপজেলার স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজমুল ইসলাম কাজল। গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘সংসদ সদস্যরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নিতে পারবেন না। কিন্তু সংসদ সদস্য রণজিত রায় বাঘারপাড়া উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হাসান আলীর প্রচারণায় প্রতিনিয়ত অংশ নিচ্ছেন। এ বিষয়ে সিইসি ও সচিবের কাছে অভিযোগ করা হয়েছে। কিন্তু কোনো প্রতিকার পাইনি। বরং সংসদ সদস্য মহোদয় আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছেন।’

নরসিংদী-৫ আসনের এমপিকে এলাকা ছাড়ার নির্দেশ : বারবার আচরণবিধি লঙ্ঘন করায় নরসিংদী-৫ আসনে আওয়ামী লীগের এমপি রাজিউদ্দিন আহমেদকে ‘চূড়ান্ত সতর্কীকরণ’ নোটিশ দিয়েছে রায়পুরা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার। নরসিংদী জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মো. মেছবাহ উদ্দিন স্বাক্ষরিত এ-সংক্রান্ত চিঠি স্থানীয় এমপিকে দেওয়া হয়। চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী আনারস প্রতীকের আবদুস ছাদেকের পক্ষে মিছিলে স্বশরীরে অংশগ্রহণের অভিযোগ রয়েছে আপনার বিরুদ্ধে, যা আচরণবিধি লঙ্ঘন। ইতিপূর্বেও আপনার বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ করা হয়েছে। এ অবস্থায় আচরণবিধি মেনে এ ধরনের কর্মকা- থেকে বিরত থাকার জন্য ‘চূড়ান্ত সতর্কীকরণ নোটিশ’ দেওয়া হলো।’

এর আগে দ্বিতীয় ধাপে গাইবান্ধা-৫ আসনের এমপি ফজলে রাব্বি মিয়া ও কক্সবাজার-৩ আসনের এমপি সাইমুম সরওয়ার কমলকে এলাকা ছাড়তে বলা হয়। প্রথম ধাপের ভোটের সময় ৯ জন এমপিকে একইভাবে চিঠি দেওয়া হয়েছিল। উপায়ান্তর না দেখে স্পিকারের শরণাপন্নও হয়েছিলেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি)।

এদিকে নির্বাচনী আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণে কাল মাঠে নামছেন পুলিশ, বিজিবি, র‌্যাব, আনসার-ভিডিপি, কোস্টগার্ড, আর্মড পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা। ভোটের পরও দুই দিন মাঠে থাকবেন তারা। শনিবার ভোট কেন্দ্রে ব্যালট পেপারসহ নির্বাচনী মালামাল পাঠানো হবে। নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে সব ধরনের ব্যবস্থা নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের দেওয়া হয়েছে কঠোর নির্দেশনা। ভোটে অনিয়ম হলে সেই দায় রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারকে নিতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে কমিশন।

৩২ ঘণ্টা আগে প্রচারণা শেষ : ভোটের ৩২ ঘণ্টা আগে সব ধরনের প্রচার-প্রচারণা নিষিদ্ধ থাকবে। সেই সঙ্গে ভোটের সাত দিন আগে থেকে বৈধ অস্ত্র লাইসেন্সধারীদের অস্ত্র বহন ও প্রদর্শন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সাধারণ ও গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রভেদে প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে পুলিশ, আনসার, ভিডিপি সদস্য ও গ্রামপুলিশ থাকবে। সাধারণ কেন্দ্রে ১৪ জন ও গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্রে নিয়োজিত থাকবে ১৫ জন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর