Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৮ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ মে, ২০১৯ ২৩:০৫

গুদামভরা পচা খেজুর

রাজধানীতে ভেজালবিরোধী অভিযান জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক

গুদামভরা পচা খেজুর

দুই বছর আগে মেয়াদোত্তীর্ণ পচা খেচুর জব্দ করেছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল দুপুর ১২টার দিকে পুরান ঢাকার বাদামতলির একটি গুদামে অভিযান চালিয়ে এসব খেজুর দেখতে পান র‌্যাব সদস্যরা। এ সময় গুদামে শত শত নতুন ও খালি কার্টন পাওয়া যায়। সেখানে পুরনো কার্টনের খেজুরগুলো মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ায় তা নতুন কার্টনে ঢোকানোর প্রস্তুতি চলছিল। এ সময় র‌্যাবের ভেজালবিরোধী অভিযানে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম।

অভিযানকালে বাদামতলির শাহজাদা মিয়া লেনে (খেজুরগলি) মা এন্টারপ্রাইজ নামের একটি দোকানের গুদামের একটি কার্টনের ওপর লেখা ইরাকের ডেট ক্রাউন খেজুর। মেয়াদোত্তীর্ণের সময় দেওয়া ২০২০ সাল। কার্টনগুলো খুলে দেখা যায় পচা, গলা খেজুর। ভিতরে আরও দেখা গেল খেজুরের মধ্যে পোকা। অথচ অনেক খেজুরের প্যাকেজিংয়ের তারিখ দেওয়া ১০ মে, ২০১৯; যা গতকালকের অভিযানের দিন থেকে তিন দিনের আগাম। ডেট ক্রাউন নামে আরেকটি খেজুরের কার্টনে দেখা যায় তার মেয়াদ গত এপ্রিলেই শেষ হয়ে গেছে। অভিযানের শুরুতে গুদামটির মালিক মো. রুবেল বা অন্য কাউকে পাননি র‌্যাব সদস্যরা। পরে তারা দরজার তালা ভেঙে ভিতরে প্রবেশ করেন। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলম জানান, ‘এসব কার্টনের গায়ে মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ এপ্রিল লেখা থাকলেও এগুলোর মেয়াদ দেড় বছর আগেই উত্তীর্ণ। এখানে মেয়াদোত্তীর্ণ স্টিকার ও কার্টন পরিবর্তন করা হয়। শত শত খালি কার্টন রাখা হয়েছে মেয়াদোত্তীর্ণ খেজুরগুলো ঢোকানোর জন্য। ব্যবসায়ীরা খেজুরের কার্টনগুলো কেটে ডেট সিরাপ স্প্রে করেন। মানহীন এসব স্প্রে করা খেজুর খাওয়ার পরদিনই ডায়রিয়া হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আগে এসব খেজুর কোল্ড স্টোরেজে (হিমাগারে) রাখা হতো। আমরা সেখানে অভিযান চালানোর পর সেগুলো গুদামে গরমে এভাবে রেখেছে।’ এরপর অভিযান চালানো হয় সেই গুদামের বিক্রয় কেন্দ্রে। সেখানেও পুরনো পচা খেজুর নতুন কার্টনে রাখতে দেখা যায়। এ ছাড়া সেখানে একটি খেজুরের গায়ে প্যাকেজিংয়ের তারিখ ১০ মে উল্লেখ করা। অথচ সেই দিন আসতে আরও তিন দিন বাকি। তাইয়েবা ডেট ফ্যাক্টরির এসব খেজুরের প্যাকেটে ব্যবহার করা হয়েছে ভুয়া কিউআর কোড।

অতিরিক্ত দাম রাখা ছয় মাংসের দোকানকে জরিমানা : সিটি করপোরেশনের নির্ধারিতের চেয়ে অতিরিক্ত দাম রাখায় গতকাল রাজধানীর ছয় মাংসের দোকানকে মোট ৩৭ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর। অভিযানকালে খিলগাঁওয়ের কালভার্ট বাজারের রাজ্জাকের মাংসের দোকানকে ৫ হাজার ও বাবুলের মাংসের দোকানকে ১০ হাজার, বউবাজারের আজগরের মাংসের দোকানকে ২ হাজার, আনসার ভবনসংলগ্ন বাবুর মাংসের দোকানকে ১০ হাজার, হাতিরঝিল রামপুরা কাঁচাবাজারের জামালের মাংসের দোকানকে ৫ হাজার ও চুন্নু মিয়ার মাংসের দোকানকে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রির অভিযোগে খিলগাঁও তিলপাপাড়ার গ্রিন ফার্মাকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে দোকানটি সাময়িক বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বিএসটিআইর অভিযানে ১০ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা : লাইসেন্স না নিয়ে পণ্য উৎপাদন, বাজারজাত করা এবং ওজন ও পরিমাপে কারচুপির অভিযোগে ১০ প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করেছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই)। গতকাল রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এসব মামলা করা হয়। লাইসেন্স ছাড়া মুড়ি, আইসক্রিম, মুগডাল, চিঁড়া ভাজা, ডাল ভাজা, ফুলক্রিম মিল্ক পাউডার, পাউরুটি, বিস্কুট, ম্যাংগো জুস (আমদানিকৃত), ফার্মেন্টেড মিল্ক (দই) উৎপাদন, আমদানি ও বাজারজাত করার অভিযোগে মতিঝিলের অলিম্পিয়া বেকারি অ্যান্ড কনফেকশনারি, মিউচুয়াল ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, ডিসেন্ট পেস্টি শপ, নিউ ইউসুফ বেকারি, শাহজাহানপুরের বাবুল ডিপার্টমেন্টাল সুইটস অ্যান্ড বেকারি, বনানীর গ্রিনল্যান্ড সার্ভিসেস লিমিটেডের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। কাপড় পরিমাপে মিটারের পরিবর্তে গজকাঠি ব্যবহার করায় গুলিস্তানের মেসার্স জাহাঙ্গীর এন্টারপ্রাইজ ও মেসার্স নিউ ব্র্যান্ড শপ নামে দুটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। কাপ্তানবাজারে মেসার্স সুমাইয়া জেনারেল স্টোর জিরা পণ্যের লেবেলে ওজন, মূল্য, উৎপাদন ও মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ উল্লেখ না করায় এবং মেসার্স শামীম পেইন্ট হাউস ডিয়ার ব্র্যান্ডের তারপিন তেল পণ্যের গায়ে ওজন, মূল্য, উৎপাদন, মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ ইত্যাদি উল্লেখ না করায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।

 


আপনার মন্তব্য