শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১ ২৩:৪৬

অস্ত্রসহ গ্রেফতার স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা কারাগারে

দায়িত্বে কিলার সুমন

নিজস্ব প্রতিবেদক

Google News

রাজধানীর শেরেবাংলানগর থানা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসফিকুর রহমান ওরফে উজ্জ্বল বিদেশি অস্ত্র ও গুলিসহ গ্রেফতারের পর এবার সহসভাপতি পদ পেলেন তেজগাঁও-শেরেবাংলানগর থানার তালিকাভুক্ত শীর্ষ সন্ত্রাসী আফজাল খান সুমন ওরফে কিলার সুমন। কারাগারে আটক পুরস্কার ঘোষিত শীর্ষ সন্ত্রাসী সুইডেন আসলামের সেকেন্ড ইন কমান্ড কিলার সুমনের বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টা, মাদক কারবার, ডাকাতিসহ চাঁদাবাজির অসংখ্য অভিযোগ রয়েছে।

পুলিশ জানায়, কিলার সুমন তেজগাঁও থানার তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টাসহ অসংখ্য মামলা রয়েছে। শেরেবাংলানগর থানায় তার বিরুদ্ধে ২১টি জিডি খুঁজে পাওয়া গেছে। সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীরা নিজেদের নিরাপত্তায় সুমনের বিরুদ্ধে জিডি করেন।

গত ১৪ জুলাই রাতে শেরেবাংলা নগর থানা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মাসফিকুর রহমান ওরফে উজ্জ্বলকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। তবে সেই রাতেই সংগঠন থেকে তাকে বহিষ্কার করা হয় বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছিল।

গত ১ সেপ্টেম্বর শেরেবাংলানগর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটিতে সহসভাপতি পদে আফজাল খান সুমন ওরফে কিলার সুমনকে নিয়োগ দেওয়া হয়। এরপর থেকেই কিলার সুমনের গ্রুপ মহড়া দিতে শুরু করে তেজগাঁও এবং শেরেবাংলানগর এলাকায়। এ অবস্থায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

পুলিশ জানায়, তেজগাঁও কলেজ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মিথুন ঢালিকে হত্যা চেষ্টার আসামি কিলার সুমনের বিরুদ্ধে অভিযোগের শেষ নেই। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তেজগাঁও এলাকায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কাজ করেছে। এরও আগে সুমন ছিল মোসাদ্দেক আলী ফালুর নির্বাচনী অন্যতম এজেন্ট। এ ছাড়াও তার বিরুদ্ধে ডাকাতি মামলাও রয়েছে।

স্থানীয়দের অভিযোগ, তার অত্যাচারে অতিষ্ঠ তেজগাঁও শেরেবাংলানগরের আগারগাঁও তালতলার বাসিন্দারা। জমি দখল, চাঁদাবাজি, চাঁদার জন্য হুমকি দেওয়া, মাদক ব্যবসা, জুয়ার কারবার- এমন কিছু নেই যা তিনি করেন না। এলাকার মানুষ তার বিরুদ্ধে সরকারের বিভিন্ন দফতরে নানা আবেদন-নিবেদন করেছেন, কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। এলাকায় কোনো ভবনের নির্মাণকাজ শুরু হলেই সেখানে হাজির হয় সুমনের বাহিনী। এরপর কাজের ধরন দেখে তারা চাঁদার পরিমাণ নির্ধারণ করে দেয়। হালে স্বেচ্ছাসেবক লীগের পদ পাওয়ার পর সুমন বাহিনী আরও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে।

 

এই বিভাগের আরও খবর