৬ নভেম্বর, ২০২১ ২১:৫১

বিনিয়োগের জন্য আকর্ষণীয় ও লাভজনক স্থান বাংলাদেশ : বাণিজ্যমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক

বিনিয়োগের জন্য আকর্ষণীয় ও লাভজনক স্থান বাংলাদেশ : বাণিজ্যমন্ত্রী

কানাডার সাসকাটসিওয়া প্রদেশ সরকারের ট্রেড অ্যান্ড এক্সপোর্ট ডেভেলপমেন্ট মন্ত্রী জেরিমে হেরিসন এবং কৃষিমন্ত্রী ডেভিড মেরিটের সঙ্গে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি

বাংলাদেশ বিনিয়োগের জন্য আকর্ষণীয় ও লাভজনক স্থান উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি কানাডার ব্যবসায়ীদের এদেশে বিনিয়োগে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন,‘ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে বাংলাদেশে ১০০ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হচ্ছে। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটিতে বিনিয়োগ শুরু হয়েছে এবং বিদেশিরা বিনিয়োগ নিয়ে আসছে। কানাডার বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে সরকার সব ধরনের সহযোগিতা দেবে।’

বাণিজ্যমন্ত্রী স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে কানাডার সাসকাটসিওয়া প্রদেশ সরকারের ট্রেড অ্যান্ড এক্সপোর্ট ডেভেলপমেন্ট মন্ত্রী জেরিমে হেরিসনের এবং কৃষিমন্ত্রী ডেভিড মেরিটের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠকের সময় এসব কথা বলেন। তিনি বর্তমানে কানাডা সফরে রয়েছেন।

টিপু মুনশি বলেন, ‘কানাডা বাংলাদেশের বন্ধুরাষ্ট্র। উভয় দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক দীর্ঘদিনের। দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধির বিপুল সুযোগ রয়েছে। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকার দেশি-বিদেশি ব্যবসায়ীদের জন্য বিনিয়োগ প্যাকেজ সুবিধা দিচ্ছে। বিনিয়োগের আনুষ্ঠানিকতা সহজ করা হয়েছে। এক দরজায় বিনিয়োগকারীদের সেবা দেওয়া হচ্ছে বলে তিনি জানান।

বাংলাদেশ সরকারের বিনিয়োগবান্ধব নীতি দেশি-বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আকৃষ্ট করতে সক্ষম হয়েছে উল্লেখ করে বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, কানাডার বিনিয়োগ এবং প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে উভয় দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য বৃদ্ধি করা সম্ভব। কৃষি ক্ষেত্রেও কানাডা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে।
  
তিনি বলেন, বাংলাদেশের অনেক ছাত্র-ছাত্রী কানাডায় শিক্ষা গ্রহণ করছে। কানাডা শিক্ষা ও কারিগরি সহযোগিতা বৃদ্ধি করতে পারে।
  
বৈঠকে কানাডার সাসকাটসিওয়া প্রদেশের দুই মন্ত্রী বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রশংসা করেন। তারা বলেন, বাংলাদেশের বিনিয়োগ নীতি এবং পরিবেশ বেশ ভালো। বাংলাদেশের সঙ্গে কানাডা ব্যবসা-বাণিজ্য এবং বিনিয়োগ বৃদ্ধির চেষ্টা করছে। বাংলাদেশের বিষয়ে কানাডা বেশ আগ্রহী বলে জানান তারা।

এসময় সাসকাটসিওয়া প্রদেশ সরকারের ট্রেড অ্যান্ড এক্সপোর্ট ডেভেলপমেন্ট বিভাগের উপমন্ত্রী জোডি ব্যাংক, গ্লোবাল ইনস্টিটিউট অব ফুড সিকিউরিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা স্টিফেন ভিসচার, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (রফতানি) মো. হাফিজুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সূত্র : বাসস

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

 
 
 

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর