শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:০২
আপডেট : ২০ জানুয়ারি, ২০২১ ১৭:০৭
প্রিন্ট করুন printer

৯৯৯-এ কল পেয়ে দৌলতদিয়া পতিতাপল্লী থেকে ১৪ কিশোরী উদ্ধার

রাজবাড়ী প্রতিনিধি

৯৯৯-এ কল পেয়ে দৌলতদিয়া পতিতাপল্লী থেকে ১৪ কিশোরী উদ্ধার
সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছেন জেলা পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান।

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া পতিতাপল্লী হতে পাচারের শিকার ১৪ কিশোরীকে উদ্ধার করেছে গোয়ালন্দ ঘাট থানা পুলিশ। মঙ্গলবার মধ্যরাতে ৯৯৯-এ সংবাদের ভিত্তিতে তাদের উদ্ধার করা হয়।

বুধবার দুপুরে পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে জেলা পুলিশ সুপার এম এম শাকিলুজ্জামান এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

উদ্ধার হওয়া বেশ কয়েকজন কিশোরী জানান, একমাস আগে গ্রাম থেকে চাকরির কথা বলে তাদের দৌলতদিয়া যৌনপল্লীতে নিয়ে আসা হয়। এরপর তাদের অন্ধকার ঘরে আটকে রেখে নির্যাতন করে। তারা সেখান থেকে বাড়িতে চলে যেতে চাইলে সেটি সম্ভব হয়নি।

তারা আরও জানান, মঙ্গলবার রাতে পুলিশ এসেছে জেনে আমরা আমাদের পাচারের বিষয়গুলো তুলে ধরি। এরপর পুলিশ আমাদের উদ্ধার করে। এ সময় জেলা পুলিশকে ধন্যবাদ জানান উদ্ধার হওয়া কিশোরীরা।

পুলিশ সুপার বলেন, পতিতালয়ে যাওয়া এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৯৯৯-এ পাচারের বিষয়ে সংবাদ পায় পুলিশ। পতিতাপল্লীর মধ্যে নাজমার বাড়ি থেকে তিন কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। তাদের তথ্যমতে নাজমার একটি গোডাউন থেকে অন্ধকারাচ্ছন্ন অবস্থায় পাচারের শিকার ১১ জন কিশোরীকে উদ্ধার করা হয়। উদ্ধারকৃতদের আদালতে হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানায় পুলিশ।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর