শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ মার্চ, ২০১৯ ২৩:২১

পরিচ্ছন্নতা প্রহসন

অপকর্মের হোতাদের শাস্তি দিন

পরিচ্ছন্নতা প্রহসন

পরিচ্ছন্নতা অভিযানের নামে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের করিৎকর্মা কর্মকর্তাদের তামাশা জনমনে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে। ঢাকা উত্তর সিটির নতুন মেয়র বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে সিটি করপোরেশনের কর্মী, ছাত্রছাত্রীসহ সামাজিক সংগঠনগুলোর সদস্যদের নিয়ে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানোর উদ্যোগ নেন। উদ্দেশ্য, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার ক্ষেত্রে জনসচেতনতা সৃষ্টি। কিন্তু সে উদ্দেশ্য পণ্ড করে দেয় সিটি করপোরেশনের কোনো কোনো কর্মকর্তার বহুল সমালোচিত প্রহসন। শনিবার মেয়র আতিকুল ইসলাম আনুষ্ঠানিকভাবে পরিচ্ছন্নতা অভিযান উদ্বোধন করবেন এমনটিই কথা ছিল। এমনিতে যাদের সক্রিয়তা দেখা যায় না সিটি করপোরেশনের সেই পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা হঠাৎ করেই তৎপর হয়ে ওঠে সকাল থেকে। রাস্তাঘাট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা শুধু নয়, সড়কে দুর্গন্ধ দূর করতে ব্লিচিং পাউডারও ছিটানো হয়। বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনও এতে অংশ নেয়। মেয়রের পরিচ্ছন্নতা অভিযান উদ্বোধনের আগেই সবকিছু পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন হয়ে ওঠায় একপর্যায়ে প্রমোদ গোনেন কর্মকর্তারা। তারা পরিচ্ছন্ন সড়কের একাংশ অপরিচ্ছন্ন করতে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের কর্মীদের নির্দেশ দেন। কর্মীদের দুজন ভ্যান গাড়িতে করে ছেঁড়া কাগজপত্রসহ আবর্জনা সংগ্রহ করে পরিচ্ছন্ন সড়ক অপরিচ্ছন্ন করার মিশনে সক্রিয় হন। হ্যান্ডমাইকে কর্তা টাইপের একজন পরিচ্ছন্নতাকর্মী তাদের নির্দেশনাও দেন কীভাবে সড়ক অপরিচ্ছন্ন করতে হবে। উত্তর সিটির এ ‘প্রহসনটি’র ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর চারদিকে রব উঠেছে ছি ছি ছি। নবনির্বাচিত মেয়র দাবি করেছেন তিনি এসবের কিছুই জানেন না। এমন কাজ যারা করেছেন তারা ঠিক করেননি। পরিচ্ছন্ন রাস্তায় কেন ময়লা ফেলা হলো সে বিষয়ে খোঁজ নেওয়ার কথাও বলেছেন তিনি। বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে শিশু ও সামাজিক সংগঠনগুলোকে নিয়ে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানোর উদ্যোগটি ছিল নিঃসন্দেহে ভালো কাজ। কিন্তু পরিচ্ছন্ন সড়ক অপরিচ্ছন্ন করে পরিচ্ছন্নতা অভিযান উদ্বোধনের যে ঘটনা ঘটেছে তা ন্যক্কারজনক। আমরা আশা করব, এই নিন্দনীয় কর্মকাণ্ডে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে মেয়র শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেবেন। নাটুকেপনা কর্মকাণ্ড নয়, জনগণের সেবা নিশ্চিত করার জন্য যাতে সিটি করপোরেশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সক্রিয় হন সে বিষয়টিও নিশ্চিত করবেন। প্রয়াত মেয়র আনিসুল হক একের পর এক ভালো পদক্ষেপ নিয়ে জনমনে শ্রদ্ধার আসন পেয়েছিলেন। পূর্বসূরির অনুসরণ নতুন মেয়রের কর্তব্য বলেও বিবেচিত হওয়া উচিত।


আপনার মন্তব্য