শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৫ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ মার্চ, ২০২০ ২১:৫৫

বাংলাদেশের রূপান্তর

প্রযুক্তি ক্ষেত্রে আরও এগিয়ে যেতে হবে

বাংলাদেশের রূপান্তর

আজকের যুগে তথ্যপ্রযুক্তিকে বিশ্বজুড়ে সর্বত্রই প্রাধান্য দেওয়া হচ্ছে। এ ক্ষেত্রে যে জাতি যতটা এগিয়ে যেতে পারছে, তারা ততটা পোক্ত অবস্থানে নিজেদের নেওয়ার সক্ষমতা অর্জন করছে। তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে বাংলাদেশ দ্রুত এগিয়ে নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা ঘোষণা করে এক দশক আগে। বাংলাদেশকে ডিজিটাল দেশে রূপান্তরের উচ্চাভিলাষী পরিকল্পনা নেওয়া হয়। এ পরিকল্পনার ফলে বাংলাদেশ ইতিমধ্যে আউটসোর্সিং আয়ের দিক থেকে বিশ্বের প্রথম কাতারের দেশ হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। তারুণ্যের বিকাশে দেশে আইসিটি বিপ্লব সংঘটনেও উৎসাহ দিচ্ছে সরকার। একে রপ্তানির প্রধান খাত হিসেবে এগিয়ে নেওয়ার প্রাণান্তকর চেষ্টাও চলছে। এক দশক আগেও যে দেশ ছিল তথ্যপ্রযুক্তির ক্ষেত্রে বিশ্বপরিসরে সবচেয়ে পেছনের কাতারের দেশগুলোর একটি, সে দেশের জন্য এমন অভিলাষ দিবাস্বপ্ন বলে মনে হতে পারে। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ অসম্ভবকে সম্ভব করতেই অভ্যস্ত। তিন দশক আগেও বাংলাদেশ ছিল পশ্চিমা বিশ্বের পুরনো কাপড়ের বাজার। অথচ সেই বাংলাদেশ এখন বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম পোশাক রপ্তানিকারক দেশে পরিণত হয়েছে। প্রযুক্তি ক্ষেত্রে এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ২৩২ একর জমিতে প্রথম হাইটেক পার্ক ‘বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটি’র নির্মাণকাজ সম্পন্ন হয়েছে। এর বাইরে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার খরিতাজুড়ি বিলে দেশের দ্বিতীয় হাইটেক পার্ক স্থাপনের জন্য ১৬৩ একর জমি অধিগ্রহণ করা হয়েছে। পাশাপাশি রাজধানীর কারওয়ান বাজারের জনতা টওয়ার, যশোর, রাজশাহীসহ দেশের সাতটি বিভাগের ১২ জেলায় সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক স্থাপন কাজের দৃশ্যমান অগ্রগতি হয়েছে। হাইটেক পার্কগুলো সচল হলেই আইসিটি সেক্টর জাতীয় রাজস্ব আয়ের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হবে বলে আশা করছে সরকার। এ সেক্টরে সম্পৃক্ত বিশেষজ্ঞদের আশাবাদ, এক দশকের মধ্যে আইসিটি হবে দেশের প্রধান রপ্তানি খাত। ইতিমধ্যে হাইটেক পার্কের উন্নয়ন ও বিনিয়োগে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ আগ্রহ দেখিয়েছে। যুক্তরাজ্য ও সিঙ্গাপুরভিত্তিক চারটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে বাংলাদেশ হাইটেক পার্কের ৩ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। জাপানও হাইটেক পার্কে বিনিয়োগে আগ্রহ দেখিয়েছে। চীন, দক্ষিণ কোরিয়াসহ অন্যান্য অগ্রসর দেশও এগিয়ে আসছে বাংলাদেশের দিকে; যা লাখ লাখ দক্ষ জনশক্তি গড়তেও অবদান রাখবে। দেশকে নিয়ে যাবে সমৃদ্ধির পথে।  পদ্মা, মেঘনা, তিতাস ও বুড়িগঙ্গার দেশ বিশ্বজুড়ে নতুন পরিচিতি  গড়ে তুলবে হাইটেক টেকনোলজির দেশ হিসেবে।


আপনার মন্তব্য