শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:১৬

ফ্রান্সে ভয়াবহ আগুন

পুড়ল ৮৫০ বছর পুরনো গির্জা নটর ডেম

তানভীর আহমেদ

দুই বিশ্বযুদ্ধের ধকল থেকে টিকে গেলেও, ভয়াবহ আগুনের সঙ্গে পেরে উঠল না প্যারিসের ৮৫০ বছরের ঐতিহ্যমণ্ডিত নটর ডেম ক্যাথেড্রাল। সোমবার আগুনে সুউচ্চ ছাদসহ গির্জাটি ধসে পড়ে। কোনোমতে পাথরের মূল কাঠামোটি রক্ষা করেছেন ফায়ার ফাইটাররা। স্থানীয় সময় সাড়ে ৬টার দিকে আগুন লাগে এবং দ্রুত ছাদে ছড়িয়ে পড়ে। সবার চোখের সামনে আগুনে জ্বলে গির্জার চূড়া ভেঙে পড়ে। গির্জার উত্তরাংশে টাওয়ার রক্ষার জন্য রাতভর চেষ্টা চালায় ফায়ার সার্ভিসের ৪০০ কর্মী। আগুন লাগার প্রায় নয় ঘণ্টা পর তা নিয়ন্ত্রণে আসে। অগ্নিনির্বাপণ বাহিনীর প্রধান জ্যঁ-ক্লদে গ্যালেট জানান, ‘প্রধান কাঠামোটি পুরোপুরি ধ্বংসের কবল থেকে রক্ষা করা গেছে এবং সংরক্ষিত আছে।’ আগুন লাগার পরপরই আশপাশের রাস্তায় হাজার হাজার মানুষ জড়ো হন। দাউ দাউ আগুনে পুড়ছে গির্জা- এই দৃশ্য দেখে অনেকে রাস্তাতেই কান্নায় ভেঙে পড়েন। অনেকে প্রার্থনা করতে থাকেন। অনেক গির্জায় বেল বাজাতে শোনা যায়। ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ ঘটনাস্থলে পৌঁছে সব ক্যাথলিক এবং ফরাসি নাগরিকের জন্য তার সমবেদনার কথা জানান। তিনি বলেন, ‘আমাদের এই অংশটি পুড়তে দেখে আমার দেশের আর সবার মতো আমিও অত্যন্ত ব্যথিত। আমরা সবাই মিলে আবারও নটর ডেম গড়ে তুলব। ক্যাথেড্রালে দুটি টাওয়ার সুরক্ষিত করতে ফায়ার সার্ভিসের যেসব কর্মী ঘণ্টার পর ঘণ্টা কাজ করেছে, তাদের ধন্যবাদ। ভয়াবহতা এড়ানো গেছে।’ অগ্নিকাণ্ডের কারণ এখনো পরিষ্কার নয়, তবে কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, চলমান সংস্কার কাজের সঙ্গে আগুনের যোগসূত্র থাকতে পারে। ১২০০ শতক থেকে প্যারিসে দাঁড়িয়ে আছে নটর ডেম। গির্জার ওপরের অংশের কিছুটা ১৩ শতক এবং আরেকটি অংশ উনিশ শতকে তৈরি। ভিক্টর হুগোর ‘দ্য হাঞ্চব্যাক অব নটরডাম’ ফরাসিদের কাছে নটরডাম ডি প্যারিস হিসেবে পরিচিতি এনে দিয়েছিল। সাড়ে ৮শ বছরের পুরনো গথিক শৈলীর এই গির্জাটি কিছু নান্দনিক বৈশিষ্ট্যের কারণে বিশেষ আকর্ষণ ছিল। এই গির্জাটির সর্বশেষ বড় ধরনের ক্ষতির শিকার হয়েছিল ফরাসি বিপ্লবের সময়। ৮৫০ বছরের প্রাচীন ভবনটি পুরোপুরি তৈরি করতে সময় লেগেছিল দুই শতক।

বিশ্বনেতাদের প্রতিক্রিয়া : প্রাচীন এই স্থাপনায় আগুনের ঘটনায় আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পরামর্শ দিয়ে বলেন, ‘সম্ভবত উড়ন্ত জল-কামান’ এই আগুন নেভাতে কার্যকর হতে পারে। জার্মান চ্যান্সেলর এঞ্জেলা মেরকেল ফ্রান্সের জনগণের প্রতি তার সমর্থনের কথা জানিয়েছেন এবং নটর ডেমকে ‘ফ্রান্স এবং ইউরোপীয় সংস্কৃতির প্রতীক’ বলে অভিহিত করেছেন। ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে এক টুইটে লিখেছেন, ‘ফ্রান্সের জনগণের সঙ্গে এবং জরুরি পরিষেবাগুলোর সঙ্গে যারা নটর ডেম ক্যাথেড্রালে ভয়ানক অগ্নিকাণ্ডের বিরুদ্ধে লড়াই করছে আজ তাদের প্রতি আমার সমবেদনা।’ ভ্যাটিক্যান থেকে বলা হয়, এই অগ্নিকাণ্ডের খবর তাদের শোকাহত এবং ব্যথিত করেছে এবং তারা ফরাসি ফায়ার সার্ভিসের জন্য প্রার্থনা করছে।

ক্যাথেড্রাল পুনর্নির্মাণে ৯৫০ কোটি টাকা দান : বিখ্যাত অভিনেত্রী সালমা হায়েকের স্বামী ফরাসি ধনকুবের ফ্রাঁসোয়া অঁরি পিনোঁ ক্যাথেড্রাল পুনর্নির্মাণে বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৯৫০ কোটি টাকা দান করার ঘোষণা দিয়েছেন। পিনোঁ জানিয়েছেন, ‘নটর ডেম ক্যাথেড্রালের পুরো সংস্কারকাজের সঙ্গে জড়িত হতে আমি ও আমার বাবা মিলে ১০০ মিলিয়ন ইউরো দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ পিনোঁ ফরাসি বিলাসবহুল গ্রুপ কেরিংয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ও একজন শিল্প সংগ্রাহক।


আপনার মন্তব্য