শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৪ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ মার্চ, ২০২১ ০০:০৩

দুই বছর ধরে নতুন নিয়োগ নেই

রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনীতে জনবল কমছে বাড়ছে ঝুঁকি

সাইদুল ইসলাম, চট্টগ্রাম

রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীতে (আরএনবি) জনবল সংকটের কারণে ঝুঁকিতে আছে রেলওয়ের অধিকাংশ কর্মকান্ড। প্রতি বছরই এ বাহিনীর সদস্যসংখ্যা অবসর ও মৃত্যুর কারণে কমছে। অথচ শূন্যপদ পূরণে দুই বছর ধরে নতুন নিয়োগ হচ্ছে না।

সূত্রে জানা গেছে, রেলওয়ের পূর্বাঞ্চল ও পশ্চিমাঞ্চলের নিরাপত্তার দায়িত্বে আছে আরএনবি। রেলওয়ের গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা, ট্রেন চলাচল, রেলওয়ের সম্পদের বেদখল হওয়া ঠেকানো, তেল-মাল বাহী ট্রেন, ঢাকা-চট্টগ্রাম-রাজশাহীসহ বিভিন্ন স্টেশনে বহিরাগত ঠেকানোসহ নানা কর্মকান্ডে জড়িত আরএনবি। এ দুই অঞ্চলে বর্তমানে এসআই, এএসআই, সেপাই মিলে ৪৪৯ জনবলের সংকট রয়েছে। এর মধ্যে এসআই ১১, এএসআই ১৭ ও সেপাই পদে শূন্য রয়েছে ৪২১ জনের পদ। তা ছাড়া চলতি বছরের জুনের মধ্যেই পূর্বাঞ্চলে ৩০ জনের বেশি সেপাই অবসরে যাচ্ছেন। একইভাবে পশ্চিমাঞ্চলেও অবসরের প্রক্রিয়ায় রয়েছেন ১০ জনের ওপরে সেপাই। অভিযোগ অনুযায়ী, প্রতিনিয়ত যাত্রী ও মাল বাহী ট্রেন এবং স্টেশন বাড়লেও আরএনবির জনবল বাড়েনি। ২০১৮ সালের পর কোনো ধরনের নিয়োগ হয়নি এ বাহিনীতে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ রেলওয়ের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (এডিজি-অপারেশন) সরদার শাহাদাত আলী বলেন, ‘অবসর ও পদোন্নতির ফলে জনবল কমে আসায় প্রচলিত নিয়ম ও আইন অনুযায়ী নিয়োগ দেওয়া হবে। তবে যেহেতু নতুন নিয়োগ হচ্ছে না এবং প্রতি বছরই রেলের বিভিন্ন বিভাগে পদোন্নতি ও অবসর হচ্ছে সেখানে জনবল সংকটের কিছুটা প্রভাব তো পড়বেই।’ পূর্বাঞ্চল রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর চিফ কমান্ড্যান্ট (সিসি-আরএনবি) জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘নিয়মিত সব কাজ পরিচালিত হলেও জনবল সংকটে কিছুটা বেগ পেতে হচ্ছে।

তবু রেলওয়ে প্রশাসনের সঙ্গে সমন্বয় করে কাজ হচ্ছে।’ একই কথা বলেন পশ্চিমাঞ্চলের চিফ কমান্ড্যান্ট (সিসি-আরএনবি) মো. আসাবুল ইসলামও।


আপনার মন্তব্য