শিরোনাম
প্রকাশ : ১৩ জুলাই, ২০২০ ১৩:৫০

কানাডার ১০৮ তম স্ট্যাম্পপিড ব্রেকফাস্ট সম্পন্ন

কানাডা প্রতিনিধি:

কানাডার ১০৮ তম স্ট্যাম্পপিড ব্রেকফাস্ট সম্পন্ন

কানাডার ক্যালগিরিতে প্রথম বারের মতো ১০৮ তম স্ট্যাম্পপিড ব্রেকফাস্ট এর  আয়োজন করা হয় বাংলাদেশ সেন্টারে। ক্যালগেরির বিভিন্ন সংগঠনের পাশাপাশি বাংলাদেশ কানাডা এসোসিয়েশন অফ ক্যালগেরির ইয়ুথ ফোরামের উদ্যোগে এই আয়োজন করা হয়। 

নতুন প্রজন্মের মাঝে ক্যালগিরির ঐতিহ্যবাহী এই স্ট্যাম্পপিড ব্রেকফাস্ট এর ধারাবাহিকতা ধরে রাখাই ছিল এর মূল উদ্দেশ্য। ইয়ুথ ফোরামের স্নিগ্ধা রায় ও নাদিয়া হাসান বলেন, বাঙালির সন্তান হয়েও কানাডিয়ান কালচারে কিভাবে দেশীয় সংস্কৃতির পাশাপাশি কানাডিয়ান কালচারের চর্চা ধরে রাখতে হবে এই লক্ষ্যেই এই আয়োজন।
 
উল্লেখ্য, কানাডার ক্যালগেরির ঐতিহাসিক স্ট্যাম্পপিডের রয়েছে কালজয়ী ইতিহাস। এ সময় সাধারণত মিডওয়ে গেমস, ঘোড়াদৌড়, অদ্ভুত এবং সুস্বাদু খাবার, লাইভ মিউজিক এবং স্থানীয় দর্শক ছোট ছোট শিশু কিশোরদের বিভিন্ন রাইড এবং বিশ্বব্যাপী পর্যটকদের দ্বারা মুখোরিত থাকে ক্যালগেরি শহর। 

পৃথিবীর সবচেয়ে বড় রেডিও শো ক্যালগেরি স্ট্যাম্পপিড ১৯১২ সাল থেকে শুরু হয়ে যুগের পর যুগ ধরে চলে আসছে আজ অবধি। করোনা ভাইরাসের কারণে ২০২০ সালের স্ট্যাম্পিড না হওয়ায় এটি প্রথম ইতিহাস করলো। যেখানে এই সময় সারা পৃথিবী থেকে কাউবয়দের আনাগোনায় পুরো শহর মুখরিত থাকার কথা সেখানে বিরাজ করছে প্রাণের স্পন্দনের শূন্যতা আর নীরবতা।

বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অফ ক্যালগারির ইয়ুথ ফোরামের উদ্যোগে ব্রেকফাস্ট শুরু হয় সকাল ১০টা  থেকে ১২টা পর্যন্ত। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে প্রায় দুই শত জনকে ব্রেকফাস্ট দেয়া হয়।  ইয়ুথ ফোরামের পক্ষ থেকে এই আয়োজনের দায়িত্বে ছিলেন নাদিয়া হাসান আর স্নিগ্ধা রায়।

এ সময় আরো  উপস্থিত ছিলেন ইয়ুথ ফোরামের স্নিগ্ধা রায়, নাদিয়া হাসান, আশিক ইসলাম,রিমিসা রসিদ,তাহিম রসিদ,রিনা তাজরিন,শারলিন রফিক, জয়িতা কাজী, রায়া সুবা, অধরা রাইমা মজুমদার,ফাইজা আফসারা, কাজী মাহির,মারভিত হোসেন সুহা,আদিবা হোসেন, মোঃ ফারদিন রহমান,নওশিন নোয়াল, ভিয়েনা হোক ও রিনাত হক। এছাড়াও বাংলাদেশ কানাডা অ্যাসোসিয়েশন অফ ক্যালগারির সভাপতি মোঃ রশিদ রিপন, সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত বসু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শুভ মজুমদার, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইসলাম মাজহার, যুগ্মসাধারণ সম্পাদক তাসফিন হুসাইন তপু, ট্রেজারার সানিলা মাহমুদসহ এসোসিয়েশনের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

ক্যালগেরি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সহযোগী ডীন, ইলেকট্রিকাল এন্ড কমপিউটার ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. আনিস হক বলেন-স্ট্যাম্পিড ব্রেকফাস্ট ক্যালগেরিবাসীদের এক বিশেষ আকর্ষণ। শহরের ছোট বড় বিভিন্ন জায়গাতে ভোর বেলা থেকে দীর্ঘ লাইন শুরু হয়। প্রাদেশিক সরকার প্রধান থেকে শুরু করে, সিটি মেয়র, এবং নির্বাচিত প্রতিনিধিরা শহরের বিভিন্ন স্থানে নিজ হাতে এই ব্রেকফাস্ট জনগণকে পরিবেশন করেন। 

কলামিস্ট আব্দুল্লা রফিক বলেন,  এ বছর করোনার প্রার্দুভাবে পৃথিবীর সবচেয়ে বড় রোডিও শো ক্যালগেরি স্ট্যাম্পিড হচ্ছে না যা ক্যালগেরিবাসীর জন্য সবচেয়ে বেদনাদায়ক ঘটনা। আশাকরি আগামী বছর পূর্ণ উদ্যোমে আমরা আবারো রোডিও শো তে ফিরবো।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর