শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:৫৩

সামনে কঠিন পরীক্ষা তবু ছুটিতে জেমি ডে!

ক্রীড়া প্রতিবেদক

সামনে কঠিন পরীক্ষা তবু ছুটিতে জেমি ডে!

ম্যাচ হারলেই সমালোচনার ঝড় ওঠে। ফুটবলে অনেক দিন পর ব্যতিক্রম লক্ষ্য করা যাচ্ছে। বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব মিশন শুরু হয়েছে আফগানিস্তানের কাছে হার দিয়ে। তবু ফুটবলারদের পারফরম্যান্সে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন দলীয় কোচ থেকে সাবেক তারকা ফুটবলাররা। তাজিকিস্তানে ০-১ গোলে আফগানদের কাছে হেরে বুধবার দেশে ফিরে এসেছেন জামাল ভূঁইয়ারা। সামনে ম্যাচ নিয়ে কোচ জেমি নতুন পরিকল্পনা আঁটছেন। এ নিয়ে ম্যানেজমেন্ট কমিটির সঙ্গে তার কথাও হয়েছে। কমিটির অনুমতি নিয়েই শিষ্যদের প্রায় দুই সপ্তাহ ছুটি দিয়েছেন জেমি ডে। ১২ দিন পর জামাল ভূঁইয়ারা অনুশীলনে ফিরবেন ২৫ সেপ্টেম্বর। ১৫ অক্টোবর ঘরের মাঠে কাতারের বিপক্ষে ম্যাচ। পাঁচ দিন পর আবার কলকাতায় ভারতের বিপক্ষে লড়াই। কথা উঠেছে সামনে কঠিন পরীক্ষার পরও ফুটবলারদের এত দীর্ঘদিনের ছুটি দেওয়া হলো কোন যুক্তিতে? তা ছাড়া দুই মাস ছুটি কাটিয়ে আবার নাকি ছুটিতে যাচ্ছেন জেমি। ক্যাম্প শুরুর আগেই ফিরবেন। বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব চলা অবস্থায় কোচকে ছুটি দেওয়া হচ্ছে কেন? ধরলাম খেলোয়াড়রা ক্লান্ত। তাকে কি এক সপ্তাহ ছুটি দিলে চলত না।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচটি হেরেছে এক ভুলেই। সেট পিসে আফগান অধিনায়ক হেডে যে গোলটি করেছেন তা ডিফেন্ডাররা সতর্ক থাকলেই রক্ষা করা যেত। গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা শেষ মুহূর্তে ফিক্সটাও ঠিকমতো করতে পারেন নি। এই গোল হজমে জেমি ডে বিরক্ত। তার কথা বড় একটা ভুলই সর্বনাশ ডেকে আনে। এরপরও ম্যাচটি ড্র করার সম্ভাবনা ছিল। যোগ করা সময়ে যেখানে টোকা মারলেই গোল তা মিস করেছেন প্রিমিয়ার লিগে স্থানীয়দের মধ্যে সর্বোচ্চ গোলদাতা নাবিব নেওয়াজ জীবন। কোচের মতে সময় নেওয়ায় ওরা জীবনকে ফাউল করে বসে। নিশ্চিত পেনাল্টি অথচ কিনা রেফারি তা এড়িয়ে যান। কোচ বলেছেন ভুল সংশোধন করে পরবর্তী ম্যাচে লড়তে হবে। ছেলেরা পুরোপুরি ফিট, এক ম্যাচ হারলেও এখনো ভালো করার সুযোগ রয়েছে।


আপনার মন্তব্য