শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ জুলাই, ২০২১ ২০:১৫
প্রিন্ট করুন printer

নাটোরে অজ্ঞাত বৃদ্ধার মৃত্যু, ইউএনও’র উদ্যোগে দাফন

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে অজ্ঞাত বৃদ্ধার মৃত্যু, ইউএনও’র উদ্যোগে দাফন
Google News

নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলা চত্ত্বরে দীর্ঘ কয়েক মাস থেকে অবস্থান করা অজ্ঞাত এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। পরিচয় শনাক্ত করতে না পেরে ইউএনও’র উদ্যোগে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১১ মাস পূর্বে উপজেলায় হঠাৎ করেই ৭০ উর্ধ্ব বয়সের ওই বৃদ্ধার দেখা মেলে। প্রথমদিকে তিনি সোনাপাতিল এলাকায় পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা খাদেমুল ইসলামের বাড়ির সামনে ছিলেন। কিছুদিন পর উপজেলা চত্ত্বরে এসে ভূমি অফিসের সামনে অবস্থান করেন। সেসময় ইউএনও’র উদ্যোগে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও তিনি সেখানে থাকতেন না। উপজেলা চত্ত্বরের বিভিন্ন স্থানে ঘুরে বেড়িয়ে রাতে রেজিস্ট্রি অফিসের নতুন ভবনের বারান্দায় রাত যাপন করতেন এবং স্থানীয়দের দেয়া খাবার খেতেন। তার পরিচয় জানতে চাইলেও বলতে পারতেন না। তবে একা একাই নিজের মতো কথা বলতেন। তিনি কোন ধর্মাবলম্বী ছিলেন তাও কেউ জানতে পারেননি। বুধবার রাতে তাকে স্থানীয়দের কয়েকজন কথা বলতে শুনেছেন। তবে বৃহস্পতিবার সকালে রেজিস্ট্রি অফিসের নতুন ভবনে তার মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা ইউএনও’কে খবর দেয়। পরে পরিচয় শনাক্ত করতে না পেরে ইউএনও ইসলামী ফাউন্ডেশনকে সৎকারের দায়িত্ব দেন। 

উপজেলা কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মো. নুরুজ্জামান জানান, বাদ যোহর অজ্ঞাত ওই বৃদ্ধার জানাজা নামাজ শেষে পেড়াবাড়িয়া গোরস্থানে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে। ইসলামী ফাউন্ডেশনের উপজেলা সুপারভাইজার মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ইউএনও স্যারের নির্দেশে তাদের ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে স্থানীয় এক মাদরাসার দুই শিক্ষিকার মাধ্যমে গোসল করিয়ে ওই নারীর সৎকার করা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রিয়াংকা দেবী পাল দীর্ঘদিন থেকে উপজেলা চত্ত্বরে থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, মৃত্যু খবর জেনে তিনি ইসলামী ফাউন্ডেশনকে সৎকারের দায়িত্ব দেন।   

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর