Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৫ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ অক্টোবর, ২০১৫ ০১:৫৪

ভেষজ

ডুমুরের উপকারিতা

ডা. আলমগীর মতি

ডুমুরের উপকারিতা

গ্রামগঞ্জে যেখানে সেখানে ডুমুর গাছ দেখা যায়। ডুমুরের আবরণ খুবই পাতলা এবং অভ্যন্তরে অনেক ছোট ছোট বীজ রয়েছে। ডুমুরের পাতা খসখসে হয়। ডুমুর খুবই উপকারী। এর ফল শুকনো ও পাকা অবস্থায় খাওয়া যায়। ডুমুরের বাইরের অংশ রান্না করে খাওয়া যায়। ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ডুমুরের রস খুবই উপকারী। তিন থেকে পাঁচটি ডুমুর প্রতিদিন খেলে যৌনশক্তি বৃদ্ধি পায়। মেয়েদের মাসিকের সময় বেশি রক্তস্রাব হলে কচি ডুমুরের রসের সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে খেলে উপকার হয় এবং রক্তপিত্ত সারে। ডুমুর পিত্ত ও আমাশয় রোগে উপকারী। রক্তপিত্ত, রক্ত পড়া এবং রক্তহীনতা রোগে উপকারী। জ্বরের পর ডুমুর রান্না করে খেলে এটি টনিকের কাজ করে। দুধ ও চিনির সঙ্গে ডুমুরের রস খেলেও অধিক ঋতুস্রাব বন্ধ হয়। আমাশয় হলে তিন দিন কচি ডুমুরের পাতা আতপ চালের সঙ্গে চিবিয়ে খেলে ভালো হয়। সাদা ও রক্ত আমাশয় হলে ডুমুর গাছের ছালের দুই চামচ রস এবং মধু মিশিয়ে দুই বেলা খেলে উপকার হয়। মাথাঘোরা রোগে ডুমুর ভাজি করে খেলে উপকার পাওয়া যায়। অতিরিক্ত হেঁচকি উঠলে ডুমুরের বাইরের অংশ কেটে পানিতে এক ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে ওই পানি ছেঁকে এক চা চামচ করে খেলে হেঁচকি ওঠা বন্ধ হয়। ডুমুর গাছের ছাল পানিসহ সিদ্ধ করে সেই পানি দ্বারা ত্বক ধুলে চর্মের বিবর্ণতা এবং ক্ষতরোগে উপকার হয়। দুধের সঙ্গে সিদ্ধ করে প্রলেপ দিলে ফোঁড়া পাকে।


আপনার মন্তব্য