শনিবার, ১০ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা

কোপা আমেরিকার ফাইনাল কাল মুখোমুখি আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল

মেজবাহ্-উল-হক

কোপা আমেরিকার ফাইনাল কাল মুখোমুখি আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল

ফুটবল বিশ্বের দুই জীবন্ত কিংবদন্তি আর্জেন্টিনার লিওনেল মেসি এবং ব্রাজিলের নেইমার জুনিয়র। দুজন ভালো বন্ধুও। স্প্যানিশ ক্লাব বার্সেলোনায় কিছু দিন সতীর্থ ছিলেন। বর্তমানে দুজন দুই ক্লাবে খেললেও তাদের সম্পর্ক এখনো মধুর। ফুটবল বিশ্বের গ্রেট দুই বন্ধুই কোপা আমেরিকার ফাইনালে আগামীকাল সকালে মুখোমুখি।

‘ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা’ ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে আকর্ষণীয় লড়াই। এ দুই দলের মুখোমুখি লড়াই মানে গোটা বিশ্ব যেন দুই ভাগ হয়ে যায়। মাঠের লড়াইয়ের আগেই দুই দলের ভক্তরা কথার লড়াইয়ে নেমে পড়েন।

বাংলাদেশের ঠিক উল্টো প্রান্তে লাতিন আমেরিকা। ১৭ হাজার কিলোমিটার দূরের দেশ দুটির সমর্থনে বাংলাদেশে মারামারি পর্যন্ত হচ্ছে। গোটা বিশ্বেই আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল তথা মেসি-নেইমারকে নিয়ে এমন মাতামাতি হচ্ছে।

আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচ মানেই টান টান উত্তেজনা! বিশ্বকাপ কিংবা কোপা আমেরিকা এলেই দুই দলকে নিয়ে পরিসংখ্যান ঘাটতে থাকেন ভক্তরা। দুই বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন, কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়ন তো বটেই। তবে বিশ্বকাপে যেমন ব্রাজিলের দাপট, কোপায় তেমনি আর্জেন্টিনা। ব্রাজিল যেখানে পাঁচবার বিশ্বকাপ জিতেছে, সেখানে আর্জেন্টিনা দুবার।  আবার আর্জেন্টিনা যেখানে ১৪বারের কোপা চ্যাম্পিয়ন, সেখানে ব্রাজিল জিতেছে নয়বার। লাতিন আমেরিকার এ প্রতিযোগিতার ফাইনালে এর আগে ১০বার মুখোমুখি হয়েছিল দুই দল। এরমধ্যে আর্জেন্টিনা জিতেছে আটবার, ব্রাজিল দুবার। তবে ফাইনালে মাঠের লড়াইয়ে এসব পরিসংখ্যান ‘মূল্যহীন’।

আগামীকালের ফাইনালে কোনো দলকে এগিয়ে রাখার উপায় নেই। দুই দলেই তারকা খেলোয়াড়ে ঠাসা। তবে ফলাফল নির্ভর করছে দুই তারকা মেসি-নেইমারের ওপর। দুই তারকাকে আটকানোর জন্য দুই দলের কোচ স্কালোনি ও তিতে আলাদা আলাদা পরিকল্পনাও করে রেখেছেন। বার্সেলোনা তারকা লিওনেল মেসিকে আটকানোর দায়িত্ব নিয়েছেন খোদ ব্রাজিল অধিনায়ক কাসেমিরো নিজেই। আর নেইমারকে আটকানোর জন্য তার পিএসজি সতীর্থ পারদেসকে দায়িত্ব দিয়েছেন স্কালোনি।

লিওনেল মেসি আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে একটু বেশিই আক্রমণাত্মক। ইতিমধ্যে এ আসরে চারটি গোল করেছেন এবং চারটি এসিস্ট করে টুর্নামেন্ট সেরা হওয়ার দৌড়েও এগিয়ে রয়েছেন। তবে ক্যারিয়ারে ব্যক্তিগত ট্রফি তো কম জেতেননি এ ফুটবল জাদুকর। এবার তার একটাই চাওয়া- আর্জেন্টিনার হয়ে শিরোপা জয় করা। লাতিন এ দলটি ২৯তম বারের মতো এবার ফাইনালে উঠেছে। তবে ’৯৩-এর পর তারা কোনো শিরোপা জিততে পারেনি। ভক্তদের বিশ্বাস, মেসি এবার আর্জেন্টিনাকে উপহার দেবেন অধরা শিরোপা।

কোপায় নিজেদের ১০ম শিরোপা জয়ের জন্য প্রস্তুত হয়ে আছে ব্রাজিলও। বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা ঘরের মাঠে ফাইনালে হারতে চান না। গ্রেট নেইমারের প্রতি তাদের বিশ্বাসও আছে। স্বাগতিক হওয়ায় ব্রাজিলের জন্য যেমন বাড়তি সুবিধা তেমনি বাড়তি চাপও থাকছে। তবে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারো মনে করেন, এ লড়াইয়ে অন্তত ৫-০ গোলে জিতবে তাদের দল। নেইমার বলেছেন, আর্জেন্টিনার বিরুদ্ধে ব্রাজিলই চ্যাম্পিয়ন হবে। তবে আলবেসিলেস্তরাও ঘোষণা দিয়েছে, বারবার ফাইনালে আর হারতে চায় না আর্জেন্টিনা। নেইমারের পিএসজি সতীর্থ পারদেস বলেছেন, জীবন দিয়ে হলেও তারা শিরোপা জিততে চান। এখন দেখা যাক, কে জেতে এবারের শিরোপা! কোপার ট্রফি লিওনেল মেসি উড়িয়ে ধরবেন নাকি নেইমার!

সর্বশেষ খবর