শিরোনাম
সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ ০০:০০ টা

শিক্ষকদের নৈতিকতার অধঃপতন পীড়া দেয়

--- অধ্যাপক এ কে আজাদ চৌধুরী

শিক্ষকদের নৈতিকতার অধঃপতন পীড়া দেয়

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. এ কে আজাদ চৌধুরী বলেছেন,  সমাজকে পঙ্কিলতামুক্ত হতে হলে বলিষ্ঠভাবে ব্যবস্থা নিতে হবে। শিক্ষকদের নৈতিকতার অধঃপতন আমাদের পীড়া দেয়। কিন্তু পুরো সমাজ আক্রান্ত হলে বিশ্ববিদ্যালয়েও এর প্রভাব পড়বে। বিশ্ববিদ্যালয়  তো এর বাইরে থাকবে না। এ শিক্ষাবিদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন যদি অধ্যাপকদের একাডেমিক এক্সিলেন্স, প্রশাসনিক দক্ষতা দেখে জীবনবৃত্তান্ত সংগ্রহ করে একটি তালিকা তৈরি করতে পারে, আর এই লিস্ট থেকে সরকার যদি যাচাইবাছাই করে উপাচার্য নিয়োগ দেয় তবে তাদের অনিয়মের অভিযোগ কমে আসবে। উপাচার্য নিয়োগ দেওয়ার ক্ষেত্রে একাডেমিক এক্সিলেন্সকে আজকাল তেমন গুরুত্ব দিয়ে দেখা যায় না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক এ উপাচার্য বলেন, উপাচার্যরা তদন্তে দোষী প্রমাণিত হলে তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করা উচিত। ইউজিসি বিভিন্ন অভিযোগের নিরপেক্ষভাবে তদন্ত করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন দেয়। কিন্তু মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন পাঠানো হলে এটি দীর্ঘসূত্রতায় পড়ে যায়। মন্ত্রণালয়কে দ্রুততার সঙ্গে এই প্রতিবেদন আমলে নিয়ে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে। এটি করা গেলে অপরাধ কমে যাবে। আর করা না গেলে অপরাধ চলতেই থাকবে।

সর্বশেষ খবর