শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৯ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ অক্টোবর, ২০১৯ ২৩:৩১

তবুও হকিতে টিকে আছেন সাঈদ!

ক্রীড়া প্রতিবেদক

হকি ফেডারেশনের নতুন কমিটি নির্বাচিত হওয়ার পর তৃতীয়বার নির্বাহী সদস্যদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হলো। ফেডারেশন সভাপতি এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাতের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত গতকাল প্রায় ৭ ঘণ্টাব্যাপী গুরুত্বপূর্ণ সভাটি অনুষ্ঠিত হয়। ফ্যালকন হলে অধিকাংশ সদস্যরা বৈঠকে উপস্থিত থাকলেও ছিলেন না নির্বাচিত নতুন সাধারণ সম্পাদক মমিনুল হক সাঈদ। অবশ্য যে নির্বাচন প্রায় ছয় মাস পার হয়ে গেছে সেখানে সাঈদকে আর নতুন বলাটা ঠিক হবে না। বৈঠকে ছিলেন না তারপরও ক্রীড়ামোদীদের আগ্রহ ছিল তাকে ঘিরেই। মতিঝিল ক্লাবপাড়ায় ক্যাসিনো কেলেঙ্কারি জড়িয়ে সাঈদ এখন গ্রেফতারের ভয়ে পলাতক। কোথায় আছেন কেউ জানেন না। অবশ্য কেউ কেউ আবার বলেন ফেডারেশনের  কারো সঙ্গে সাঈদের নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে। এমনকি ফেডারেশনের কর্মসূচি চলছে তারই অর্থে। সাধারণ সম্পাদক নেই অথচ তারই অর্থ ব্যয় হচ্ছে ফেডারেশনের কর্মকান্ডে। ঘটনা যদি সত্যিই হয়ে থাকে সাঈদ তাহলে নিশ্চয় কোনো কর্মকর্তাকে  বড় অঙ্কের ফান্ড দিয়ে গেছেন। কথা হচ্ছে এই কর্মকর্তা কে? আইনশৃঙ্খলাবাহিনী তদন্ত করলে নিশ্চয় নাম বের হয়ে আসবে। সাঈদ তার অপকর্মের জন্য ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদ হারিয়েছেন। তাই অনেকে ভেবেছিলেন গতকালকের বৈঠকে ফেডারেশন থেকেও বহিষ্কার করা হবে। অথচ বিষয়টি নিয়ে বৈঠকে তেমন আলোচনাও হয়নি। নির্বাহী কমিটির এক সদস্য জানালেন গঠনতন্ত্র মেনেই ফেডারেশন এগোচ্ছে। সাঈদ যদি পরের দুই সভায় অনুপস্থিত থাকেন তখন তাকে শোকজ পাঠানো হবে। তিনি যদি জবাব দিতে না পারেন তারপরেই বহিষ্কারের ব্যাপারটি টেবিলে উঠবে।পরের দুই সভায় অনুপস্থিত থাকলে সাঈদকে শোকজ দেওয়া হবে। জবাব না মিললে তখন করা হবে বহিষ্কার।

এই প্রশ্ন সাংবাদিকরা করেছিলেন সাধারণ সম্পাদকের ব্যাপারে ফেডারেশনের সিদ্ধান্ত কি? 

সভাপতি বলেছেন, ‘গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’ গঠনতন্ত্রে আছে কাউকে বহিষ্কার করতে হলে তিনটি নির্বাহী কমিটির সভা করতে হবে। এখানে যদি সাঈদ অনুপস্থিত থাকেন তাকে শোকজ নোটিস পাঠানো হবে। ততদিন পর্যন্ত ১ নম্বর যুগ্মসম্পাদক মো. ইউসুফ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করবেন।

১টি সভা হয়ে গেল। আর দুটি হবে। এরপরই সাঈদের ভাগ্য নির্ধারণ হবে। প্রশ্ন হচ্ছে সাঈদ তো পলাতক এখন শোকজ দিলে তিনি পাবেন কীভাবে? নির্বাহী কমিটির এক সদস্য জানালেন ফেডারেশনে তার যে ঠিকানা আছে সেখানেই পাঠানো হবে।


আপনার মন্তব্য