২ অক্টোবর, ২০২১ ২২:১৯

স্মার্টফোনে গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষায় কাজ করছে অপো

প্রেস বিজ্ঞপ্তি

স্মার্টফোনে গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষায় কাজ করছে অপো

উন্মুক্ত তথ্যপ্রবাহের এই যুগে মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা এখন মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। যার বেশিরভাগই স্মার্টফোন কেন্দ্রীক। ফোনের লক থেকে শুরু করে ক্রেডিট কার্ডের পাসওয়ার্ড সবই স্মার্টফোনে সীমাবদ্ধ। এটি খোঁয়া গেলে অনেক কিছুই হারানোর ভয় থাকে। তাই গ্রাহকের গুরুত্বপূর্ণ তথ্যের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিতে অবিরত কাজ করে যাচ্ছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় ডিভাইস নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপো।

অপো মনে করে, তাদের কাছে গ্রাহকের গোপনীয় তথ্য সুরক্ষার গুরুত্ব সর্বাগ্রে। আর সেভাবেই অপোর সব ডিভাইস ডিজাইন করা হয়ে থাকে।

অপো জানায়, তারা ব্যবহারকারীর ডাটা নিরাপদ রাখতে অনবরতভাবে নিরাপত্তা পদ্ধতি আপগ্রেড করে যাচ্ছেন। উদাহরণস্বরূপ অপোর সর্বশেষ বাজারে আসা এ১৬ ফোনের অ্যাপ লকে অ্যাপ হাইডিং অপশন সাব-ফিচার হিসেবে রাখা হয়নি। এটি এখন অ্যাপ লকের সাথে একই সেটিং পেইজে বিদ্যমান। তাই এখন থেকে কেউ আর ব্যবহারকারীর তথ্য অপব্যবহার করতে পারবেন না।

তাছাড়া, কমপ্লায়েন্স প্রতিষ্ঠান হিসেবে অপো সবসময় ইউরোপীয় ইউনিয়নের ডাটা সুরক্ষা সম্পর্কিত ‘জেনারেল ডাটা প্রোটেকশন রেগুলেশন’ বিধি মানতে বাধ্য। তাইতো অপো কোনো অবস্থাতেই সম্মতি ছাড়া কারো ডাটা জমা রাখে না। ব্যক্তিগত তথ্য নিরাপদ রাখতে অপোর ‘এনক্রিপশন ও ডাটা অ্যাকসেস রেসট্রিকশন’ এর মতো অপশন রয়েছে।

এছাড়া, ডাটা সুরক্ষায় অপোর রয়েছে নিজস্ব অ্যান্ড্রয়েড কাস্টমাইজড অপারেটিং সিস্টেম (ওএস) কালারওএস সিস্টেম অপটিমাইজার এবং ভাইরাস ও ম্যালওয়ার থেকে রক্ষা সুরক্ষা দিতে অপো ফোনের রয়েছে অ্যাভাস্ট পাওয়ার্ড অ্যান্টিভাইরাস। ফলে অযাচিত বাইরের আক্রমণ থেকে ফোন থাকে নিরাপদে।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কথা হচ্ছে, অপো ভক্তদের ব্যক্তিগত তথ্যের সর্বোচ্চ নির্ভরতা দিতে বিশ্বব্যাপী অপো ডাটা সিকিউরিটি ডিপার্টমেন্ট খুলেছে ও একজন ডাটা প্রটেকশন অফিসার নিয়োগ দিয়েছে। তাই স্মার্টফোনের ব্যক্তিগত ডাটা সুরক্ষিত রাখতে চাইলে আপনার জন্য অপো হতে পারে ‘বেস্ট অপশন’। কারণ গ্রাহকের তথ্যের সুরক্ষায় যা যা করণীয় সবকিছুই করে থাকে প্রতিষ্ঠানটি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর