শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ ০০:০০

হাজার বছরের স্টোনহেঞ্জ

হাজার বছরের স্টোনহেঞ্জ

হাজার বছর ধরে পৃথিবীর অত্যাশ্চর্য হয়ে আছে স্টোনহেঞ্জ। কয়েক খণ্ড পাথরের এই বিন্যাস পৃথিবীর সেরা রহস্যের একটি। ওয়িল্টসিয়ারের প্রায় আট মাইল উত্তরে সেলিবরিওতে এর অবস্থান। প্রতি বছর এখানে প্রায় ১০ লাখ দর্শনার্থী ছুটে আসেন এই রহস্যময় দাঁড়ানো পাথরগুলো দেখতে। গবেষকরা দাবি করে এটি প্রায় পাঁচ হাজার বছর আগের প্রাগৈতিহাসিক স্মৃতিস্তম্ভ। আজও এর নির্মাণের উদ্দেশ্য রহস্যময়। অনেক পুরনো হাড়ের অস্তিত্ব এটাকে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ার একটি মন্দির হিসেবে চিহ্নিত করে। এসব হাড়ের মাধ্যমে জানা যায়, এটি খ্রিস্টপূর্ব ৩০০০ থেকে ২৫০০ অব্দে নির্মিত হয়েছিল। প্রফেসর টিম ডারভিলের মতে এই স্তম্ভের মাঝে মাঝে যেসব নীল প্রস্তর খণ্ড রয়েছে এদের কারণে দুর্বল, অসুস্থ লোকেরা আসত তাদের পরিশুদ্ধ, সুস্থতা কামনার জন্য। কারণ তাদের ধারণা ছিল- এসব পাথরের জাদুকরী ক্ষমতা আছে।

তবে পার্কার পিয়ারসনের মতে একটি সর্বজনীন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এখানে সম্পন্ন হতো। যেখানে ব্রিটিশরা একত্রিত হতো যা ব্রিটিশদের মাঝে খুবই দুর্লভ। তার ধারণা ব্রিটিশদের পূর্বপুরুষদের স্মৃতিস্তম্ভ এটি। যার প্রতি শ্রদ্ধা দেখাতে তারা জড়ো হতো এখানে। ধারণা করা হয় এখানে প্রাথমিক পর্যায়ে ভেতরের দিকে ১১০ মিটার গভীর একটি গোলাকার খাল ছিল। উত্তর-পূর্ব দিকে এর বড় একটি ও দক্ষিণের দিকে অপেক্ষাকৃত ছোট প্রবেশ পথ আছে এখনো। এটি সামান্য ঢালু জমির ওপর অবস্থিত। খালের তলদেশে হরিণ, ষাঁড়ের হাড় ও কিছু চমকি পাথর পাওয়া যায়। পরীক্ষা করে জানা যায়, খাল খননে যে হরিণের শৃঙ্গ ব্যবহার করা হয় তার চেয়ে এই হাড়গুলো পুরনো। কালের পরিক্রমায় খালের তীরের আশপাশের মাটি থেকে পলি জমতে শুরু করে। খালের চারদিকে ৫৬টি ছোট গর্ত ছিল। ধারণা করা হয় এগুলিতে গাছের গুঁড়ি খাড়া করে বসানো হয়। এতে করে অনেকটা গোলাকার গাছের সারির তৈরি হয়। দক্ষিণ দিকে কয়েকটাকে সমান্তরালে গর্তে বসানো হয়। সম্প্রতি এটিকে সমাধিস্থল হিসেবেই বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়। তবে সে যাই হোক, গবেষণা এখনো চলছে। এই দাঁড়ানো পাথরগুলো যুগ যুগ ধরে মানুষের মনে না উত্তর না মেলা প্রশ্ন হয়ে আছে।

 

 


আপনার মন্তব্য

Bangladesh Pratidin

Bangladesh Pratidin Works on any devices

সম্পাদক : নঈম নিজাম,

নির্বাহী সম্পাদক : পীর হাবিবুর রহমান । ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডের পক্ষে ময়নাল হোসেন চৌধুরী কর্তৃক প্লট নং-৩৭১/এ, ব্লক-ডি, বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, বারিধারা, ঢাকা থেকে প্রকাশিত এবং প্লট নং-সি/৫২, ব্লক-কে, বসুন্ধরা, খিলক্ষেত, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯ থেকে মুদ্রিত। ফোন : পিএবিএক্স-০৯৬১২১২০০০০, ৮৪৩২৩৬১-৩, ফ্যাক্স : বার্তা-৮৪৩২৩৬৪, ফ্যাক্স : বিজ্ঞাপন-৮৪৩২৩৬৫। ই-মেইল : [email protected] , [email protected]

Copyright © 2015-2020 bd-pratidin.com