শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ এপ্রিল, ২০২০ ০০:১০

কোডিং জটিলতা বরাদ্দ ঘাটতি

খুলনায় দুই শতাধিক নার্সের বেতন বন্ধ

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

খুলনায় দুই শতাধিক নার্সের বেতন বন্ধ

কোডিং জটিলতায় খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের দুই শতাধিক নার্সের বেতন-ভাতা আটকে গেছে। এতে হতাশা দেখা দিয়েছে ভুক্তভোগীদের মাঝে। জানা যায়, নতুন কোডিং পদ্ধতিতে অনলাইন বেতনের ক্ষেত্রে কর্মচারীদের মূল বেতনের পাশাপাশি বাড়িভাড়া, চিকিৎসা, শিক্ষা, পোশাক ও ধোলাই ভাতা খাতে আলাদাভাবে বরাদ্দ দিতে হয়। এর মধ্যে কোনো একটি খাতে বরাদ্দ না থাকলে বেতন-ভাতা ছাড় করানো যায় না।

গত ফেব্রুয়ারি মাসে শিক্ষা ও বাড়িভাড়া খাতে ঘাটতির কারণে খুমেক হাসপাতালের ২২৬ জন নার্সের বেতন আটকে যায়। একই কারণে খুলনার ফুলতলা ও কয়রা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত নার্সদের বেতন নিয়েও জটিলতা তৈরি হয়েছে। খুমেক হাসপাতালের হিসাবরক্ষক এস এম গোলাম কিবরিয়া জানান, কোডিং পদ্ধতিতে কোনো খাতে উদ্বৃৃত্ত থাকলেও তা থেকে ঘাটতি সমন্বয় করা যায় না। ফলে শিক্ষা ও বাড়িভাড়া খাতে বরাদ্দ কম থাকায় হাসপাতালের ৩৭৬ জন নার্সের মধ্যে প্রায় দেড় শ’ জনের ফেব্রুয়ারি মাসের বেতন ছাড় করানো গেলেও বাকিদের বেতন আটকে গেছে। খুমেক হাসপাতালের পরিচালক ডা. এ টি এম মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, সময়মতো বেতন-ভাতা না পাওয়ায় নার্সদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে। তিনি দ্রুত এই খাতে বরাদ্দ দেওয়ার দাবি জানান।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর