শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৬ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ আগস্ট, ২০১৯ ২৩:২৫

জলঢাকায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ

নীলফামারী প্রতিনিধি

জলঢাকায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ

নীলফামারীর জলঢাকায় জাতীয় শোক দিবসে গতকাল আওয়ামী লীগের দুই গ্রপের সংঘর্ষে তিন পুলিশ সদস্য, এক শিক্ষকসহ পাঁচজন আহত হন। এদের মধ্যে চারজনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ, কাঁদুনে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়ে। ঘটনার পর নীলফামারী শহরে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

পুলিশ জানায়, গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু চত্বরে চলমান বিরোধের জেরে দুই গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক গ্রুপের নেতৃত্ব দেন উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আনসার আলী মিন্টু। অপর গ্রুপে আছেন সাবেক সংসদ সদস্য গোলাম মোস্তফা।

গোলাম মোস্তফা অভিযোগ করে বলেন, বঙ্গবন্ধু চত্বরে জাতির জনকের জীবনী নিয়ে আলোচনা করছিলেন আওয়ামী লীগের সাবেক উপজেলা সভাপতি আবদুল মান্নান। এ সময় বর্তমান উপজেলা সভাপতি আনসার আলী মিন্টুর নেতৃত্বে লাঠিসোঁটা নিয়ে হামলা চালানো হয়। পাল্টা অভিযোগ করে আনসার আলী মিন্টু বলেন, আগে থেকে নির্ধারিত দলীয় কর্মসূচির আলোকে শোক র‌্যালি নিয়ে যখন আমরা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যাই তখন সাবেক এমপি মোস্তফা এবং আবদুল মান্নানের নেতৃত্বে আমাদের ওপর হামলা করা হয়। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রুহুল আমিন বলেন, ‘আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনতে কাঁদুনে গ্যাস ও রাবার বুলেট ছোড়া হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক।’

শোক র‌্যালিতে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া : সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, জেলায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকীর র‌্যালিতে আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়েছে। সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহসভাপতি নূরুল হুদা মুকট ও সাধারণ সম্পাদক এনামুল কবির ইমনের সমর্থকদের মধ্যে গতকাল দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর