Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৫ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ৪ অক্টোবর, ২০১৮ ২১:২৫

শারদ উৎসবে উজ্জ্বল ত্বক

কয়েক দিন বাদেই এসে হাজির হবেন মা। পঞ্চমী দিয়ে পূজার পর্ব শুরু। পঞ্চমী থেকেই চলবে প্যান্ডেলে গিয়ে প্রতিমা দেখার মহোৎসব। তাহলে আর সময় নষ্ট নয়, শুরু হোক এখন থেকেই।

সাদিয়া সারা

শারদ উৎসবে উজ্জ্বল ত্বক
♦ মডেল : শ্রাবণ ইতি ♦ ছবি : ফ্রাইডে

উৎসবের সাজ। তোড়জোড় তো থাকবেই। তার ওপর দুর্গা মায়ের আশীর্বাদ বলে কথা। মহালয়া থেকে দশমী; প্রতিদিনের সাজ হওয়া চাই উৎসবমুখর। কিন্তু কীভাবে শুরু করবেন ভাবছেন? নির্দ্বিধায় শুরু করুন রূপচর্চা দিয়ে। কেননা, মেকআপ, কাঠফাটা রোদ আর সারা বছর কত অত্যাচারই না সয় আপনার ত্বক! হয়তো মাসে একবার পারলারে ঢু মারেন। কিন্তু  তাতে কি হারানো উজ্জ্বলতা ফেরানোর জন্য যথেষ্ট? এমন প্রশ্নের উত্তরে রূপবোদ্ধারা এক কথায় না বলে দেন।

 

আসলে সারা বছরের অত্যাচার তো আর একবারে যাবে না। তাই প্রয়োজন উৎসবের আগে নিয়মিত পরিচর্যা। এ প্রসঙ্গে বিউটি জোন ওমেন্স ওয়ার্ল্ডের পরিচালক ও রূপবিশেষজ্ঞ ফারনাজ আলম বলেন, উৎসবের আগের দিনগুলোতে মুখ পরিষ্কার রাখা, ময়েশ্চারাইজার, টোনার আরও কত কি করতে হয়। তাতে যদি কাজের কাজটুকু হয় তবে তো আর আপত্তি করবেন না। আসল কথা হলো শরীরের যেমন খাবার প্রয়োজন তেমনই ত্বকের প্রয়োজন প্রয়োজনীয় পুষ্টি। আর ত্বকের পুষ্টিতে কোনো ঘাটতি না থাকলেই আপনার ত্বক হবে উজ্জ্বল। আর তাতে আপনি হয়ে উঠবেন উৎসবে সবার মধ্যে অনন্য।

 

এক্ষেত্রে শুরুতেই বলতে হয় সঠিক খাদ্যাভ্যাসের কথা। মনে রাখতে হবে, ভালো ত্বক পেতে হলে খাদ্যাভ্যাসে বদল আনা জরুরি। তেল, মসলা যতটা সম্ভব এড়িয়ে চলুন। এসবের পরিবর্তে তাজা সবজি ও ফল বেশি বেশি খাওয়ার চেষ্টা করুন। এ সময় পাকা পেঁপে খেতে পারেন। এতে থাকা ভিটামি ‘এ’ ও ‘সি’ এবং বিএইচএর মতো উপাদান ত্বকের ভিতর থেকে উজ্জ্বলতা বাড়াতে সাহায্য করবে। পাশাপাশি ভিটামিন ‘সি’ জাতীয় ফলমূল খেতে পারেন। আর হ্যাঁ, বেশি বেশি পানি খেতে ভুলবেন না। 

যেহেতু গরম এখন বেশি, তাই প্রতিদিন দুই তিনবার মুখ ধোয়ার চেষ্টা করুন। নিজের ত্বক বুঝে পদক্ষেপ গ্রহণ করুন। তবে যাই করুন বেশি বেশি স্ক্রাবিং করা উচিত নয়। সানস্ক্রিন লাগানোর সময় তাতে এক ফোঁটা পানি মিশিয়ে নিন। এতে ঘাম হবে না। যেহেতু পানিতে রয়েছে ময়েশ্চারাইজার, তাই উপকারও পাবেন। শুধু সানস্ক্রিনেই নয়, মুখে যে ক্রিমই ব্যবহার করুন না কেন, তাতে একটু পানি মিশিয়ে নিন। ত্বক নরম হবে। পাশাপাশি বাজারের চলতি প্রসাধনী ব্যবহারের ক্ষেত্রে শতভাগ হার্বাল উপাদানে তৈরি প্রসাধনী ব্যবহার করুন এবং সময় পেলে ঘরোয়া টোটকাও ট্রাই করে দেখতে পারেন।

 

►  ত্বক নরম থাকলে এবং ত্বকে আর্দ্রতার পরিমাণ ঠিক থাকলে ত্বক এমনিতেই স্বাস্থ্যোজ্জ্বল দেখাবে। আর এই দুয়ের জন্য অ্যালোভেরা জেল উত্তম দাওয়াই। ১ টেবিল চামচ অ্যালোভেরা জেল, ১ চা চামচ মধু এবং ১ চা চামচ দুধ মিশিয়ে মুখে লাগান। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।

 

►  ভিটামিন ‘এ’ ও ‘সি’-এর অন্যতম প্রধান উৎস পেঁপে এবং এর বিএইচএ ত্বকের মৃতকোষ দূর করতে সাহায্য করে। ২ টেবিল চামচ পাকা পেঁপে, ৩-৪ চিমটি কফি ও গুঁড়া দুধ একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগান। আধা ঘণ্টা রেখে ধুয়ে ফেলুন। ত্বকে চটজলদি উজ্জ্বলতা ফিরে আসবে।

 

►  ত্বকে উজ্জ্বলতা আনতে গোলাপজলের যথেষ্ট সুনাম রয়েছে। এটি ত্বকের আর্দ্রতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। গোলাপজল আধা ঘণ্টা ফ্রিজে রেখে তুলো দিয়ে ডুবিয়ে মুখে চেপে চেপে লাগান। উপকার পাবেন।

 

►  কলা অ্যান্টি-অক্সিডেন্টের একটি ভালো উৎস। একটি ডিমের কুসুম, এক চা চামচ মধু এবং একটা পাকা কলা থেতো করে নিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিন। মুখ ভালো করে ধুয়ে, শুকিয়ে নিন। আপনার মুখ এবং গলায় মাস্কটির একটি পাতলা প্রলেপ লাগান। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।


আপনার মন্তব্য