শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৫০

উ বিয়াওফেংয়ের মন্তব্য

চীনা সিভিল সোসাইটি আঘাত সইতে সইতে এখন ‘বরফ যুগে’

প্রতিদিন ডেস্ক

চীনের প্রবীণ নাগরিক ভিন্ন মতাবলম্বী উ বিয়াওফেং বলেছেন, চীনের কমিউনিস্ট পার্টির (সিসিপি) কাছ থেকে আঘাত বছরের পর বছর সইতে সইতে তাঁর দেশটি এখন নজিরবিহীন এক ‘বরফ যুগে’ প্রবেশ করেছে।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট (এসসিএমপি) পত্রিকায় প্রকাশিত খবরে বলা হয়, উ বলেছেন ইদানীং চীন সরকারের কোনো কাজের বিরোধিতা করা মাত্রই প্রতিশোধাত্মক পদক্ষেপের শিকার হতে হচ্ছে।

করোনাভাইরাস মহামারীর প্রতিকারে নেওয়া সরকারি পদক্ষেপের সমালোচনা করায় আটক হয়েছেন সাংবাদিক, স্বনামখ্যাত শিক্ষাবিদ, এমনকি কমিউনিস্ট পার্টির সদস্যরাও।

উ বিয়াওফেং নিজেও গ্রেফতার হয়েছিলেন। তাঁকে ১৫ দিন অন্তরিন রাখা হয়। পরে আরেকটি জায়গায় নিয়ে গিয়ে করা হয় নজরবন্দী। উ’র স্ত্রী উই হুয়ানহুয়ানের কাছে পাঠানো চিঠিতে পুলিশ জানায়, অন্তঘাতী কাজে নাগরিকদের উসকে দেওয়ায় তার স্বামীকে বন্দী করা হয়েছে।

সিসিপির দমন অভিযানের তীব্রতা এতটাই বেড়ে গেছে যে, মূল চীনা ভূখন্ডের যেসব নাগরিক ‘সমাজে পরিবর্তন’ আনতে সংগ্রাম করছেন, তাদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়েছে। তারা ভাবছেন, ‘ভিন্নমতের প্রতি কর্তৃপক্ষীয় অসহিঞ্চুতার মাত্রা বেড়ে যাওয়ার মানে আমাদের আন্দোলন গুরুত্বহীন হয়ে পড়ল?’

‘সার্সের মতো’ নতুন একটা ভাইরাস সম্পর্কে হুঁশিয়ারি দিয়ে সহকর্মীদের কাছে বার্তা পাঠিয়েছিলেন উহানের ডা. লি ওয়েনলিয়াং। ১১ মাস আগের সেই বার্তা জনমনে আস্থার সংকট তৈরি করতে মারমুখো বেইজিং কর্তৃপক্ষ। এর কদিন পরই করোনায় মারা গেলেন ডা. ওয়েনলিয়াং। এতে হৈ হট্টগোল শুরু হলে সমগ্র চীনে কড়া সেন্সরশিপ জারির পাশাপাশি ভিন্নমত দলনে রাজনৈতিক অভিযান চলতে থাকে।


আপনার মন্তব্য