বৃহস্পতিবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

নৃত্যে বিজয় মাসের প্রথম প্রভাত

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

নৃত্যে বিজয় মাসের প্রথম প্রভাত

গান, কবিতা ও নাচের ঝংকারে শিল্পকলায় গতকাল ফুটিয়ে তোলা হয় ‘বিজয় মাসের প্রথম প্রভাত’ শীর্ষক অনুষ্ঠানমালা। বাঙালির ত্যাগের ইতিহাস গানের সুরে, কবিতার দীপ্ত উচ্চারণে আর নৃত্যের ছন্দময় মুদ্রায় তুলে ধরা হয়।

বিজয়ের মাসের প্রথম দিন সকালে শিল্পকলা একাডেমির উন্মুক্ত প্রাঙ্গণে উদযাপিত হয় ‘বিজয় মাসের প্রথম প্রভাত’ অনুষ্ঠানমালা। চমকপ্রদ এমন আয়োজনে সম্মাননা জানানো হয় দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে লাল, সবুজ ও সাদা রঙের শত বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠান উদ্বোধন করা হয়। এতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত ৫০ জন মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা প্রদান করা হয়। পদক্ষেপ বাংলাদেশ-এর আয়োজনের এই অনুষ্ঠানের শুরুতেই দলীয় নৃত্য পরিবেশন করে নাচের দল নৃত্যাক্ষ। ‘আমি বিজয় দেখেছিলাম ডিসেম্বরে’ ‘জয় বাংলা বাংলার জয়’সহ কয়েকটি গানের সুরে  পরপর পরিবেশিত হয় দলীয় নৃত্য। এরপর ‘তীরহারা এই ঢেউয়ের সাগর পাড়ি দেবো রে’ ও ‘পূর্ব দিগন্তে সূর্য উঠেছে’ পরিবেশন করেন আরিফ রহমান। স্বাধীন বাংলা বেতারের শিল্পী মনোরঞ্জন ঘোষাল পরিবেশন করেন ‘ও দরদী নাইয়ারে তুমি টুঙ্গিপাড়া যাও’। এ ছাড়া আরও সংগীত পরিবেশন করেন শান্তা সরকার,্ মারুফ হোসেন, ঐশ্বর্য বসাক, শ্রাবণী গুহ রায় ও সোমা দাস। দলীয় সংগীত পরিবেশন করে সমস্বর, স্বভূমি লেখক শিল্পী কেন্দ্র, মন্দিরা সাংস্কৃতিক পাঠশালা, স্বপ্ন বিকাশ কলা কেন্দ্র ও সপ্তকলি আসরের শিল্পীরা। একাত্তরের রণাঙ্গনে মুক্তিযোদ্ধাদের উদ্দীপ্ত করা এম আর আখতার মুকুলের চরমপত্র থেকে পাঠ করেন সৈয়দ শহীদুল ইসলাম নাজু ও তামান্না সারোয়ার নীপা। একক আবৃত্তি পরিবেশন করেন নায়লা তারান্নুম চৌধুরী কাকলী।

দলীয় আবৃত্তি পরিবেশন করেন স্বরকল্প, স্বরব্যঞ্জন ও চারুকণ্ঠ আবৃত্তি সংসদের শিল্পীরা। সমবেত নৃত্য পরিবেশন করেন  নৃত্যাক্ষ, স্পন্দন, ও স্বপ্ন বিকাশ কলা কেন্দ্রের নৃত্যশিল্পীরা। সাংস্কৃতিক পরিবেশনা শেষে বের করা হয় বর্ণিল বিজয় শোভাযাত্রা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) চেয়ারম্যান অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) চেয়ারম্যান শ্যামসুন্দর সিকদার। আমন্ত্রিত মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা জি কে বাবুল। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন স্বাধীন বাংলা বেতারের শিল্পী বুলবুল মহলানবীশ। ঘোষণাপত্র পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুন নিসা। সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি বাদল চৌধুরী।

সর্বশেষ খবর