শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা
অন্যরকম

প্রেমিক যুগলের হাসপাতালেই বিয়ে

এম এ শাহীন, সিদ্ধিরগঞ্জ

  প্রেমিক যুগলের হাসপাতালেই বিয়ে

‘বুকে প্রচন্ড ব্যথা’। বিয়ের কথাবার্তা চলছে মেয়ের এমন ‘অসুস্থতায়’ চিন্তিত হয়ে পড়লেন বাবা-মা। নিয়ে এলেন চিকিৎসকের কাছে। চিকিৎসক হার্টের কয়েকটি টেস্ট করেও কোনো রোগ শনাক্ত করতে পারেননি। কিন্তু তরুণীর সঙ্গে কথা বলে চিকিৎসক জানতে পারলেন তার আসল রোগ। মূলত ওই তরুণী তার প্রেমিককে বিয়ে করতে অসুস্থতার ভান করেছিলেন। বিষয়টি জানার পর তরুণীর বাবা ক্ষিপ্ত হন। কিন্তু তরুণী তার দাবিতে অনড়। তরুণীর বাবাকে অনেক বুঝিয়ে অবশেষে রাজি করালেন ওই চিকিৎসক। এরপর হাসপাতালেই বর্ণিলভাবে তাদের বিয়ের আয়োজন করা হয়। এতে সহযোগিতা করেন হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও স্টাফরা। হাসপাতালে বিয়ে। কথাটা যে কেউ শুনলেই অবাক হবেন। বৃহস্পতিবার (১৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় এমনই ঘটনা ঘটেছে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের শিমরাইল মোড়ের মা হাসপাতালে। এ ঘটনায় এলাকাবাসীর মুখে মুখে নানা কথা চলছে। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বুধবার (১৫ ডিসেম্বর) দুপুরে বুকে ব্যথা নিয়ে সিদ্ধিরগঞ্জের হাউজিং এলাকার ভাড়াটিয়া মো. ইউসুফের মেয়ে খাদিজা (১৮) মা হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে আসেন। তখন হাসপাতালটির ডিউটিরত ডাক্তার মাহফুজকে মেয়েটি জানান তিনি ওয়ালীউল্লাহ নামে একজনকে ভালোবাসেন। তবে তার বিয়ে অন্য জায়গায় ঠিক করায় তাকে এই অভিনয় করতে হয়েছে। তখন ডা. মাহফুজ খাদিজার প্রেমিককে কল করে তার প্রেমিকার অবস্থা অনেক খারাপ জানিয়ে তাকে হাসপাতালে অতি দ্রুত আসতে বলেন। ছেলে আসতে রাজি হলে তিনি মেয়ের বাবাকে বিষয়টি জানান। একপর্যায়ে তাদের বিয়ের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়। অনেক বুঝানোর পর তারপর বিয়ের কার্যক্রম শুরু করে মেয়ের বাবা। তখন ছেলের পক্ষ থেকে ছেলের দুলাভাই ও খালা উপস্থিত হন। পরবর্তীতে হাসপাতালের সব ডাক্তার, নার্স এবং স্টাফদের সহযোগিতায় সুন্দরভাবে হাসপাতালেই তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। ছেলে-মেয়ে দুজনেই গার্মেন্টকর্মী। বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে মা হাসপাতালের রিসিপশনের দায়িত্বে থাকা মো. সোহাগ বলেন, তার উপস্থিতিতেই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

সর্বশেষ খবর