শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ নভেম্বর, ২০২০ ০১:৩৫
প্রিন্ট করুন printer

বিভাগীয় শহরে ঢাবি'র ভর্তি পরীক্ষা, আছে বড় রকমের চ্যালেঞ্জ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

বিভাগীয় শহরে ঢাবি'র ভর্তি পরীক্ষা, আছে বড় রকমের চ্যালেঞ্জ

করোনা পরিস্থিতির কারণে প্রথমবারের মত এ বছরের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস ছাড়াও বিভাগীয় শহরগুলোতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তবে এতে বেশ বড় রকমের চ্যালেঞ্জ আছে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞরা। 

বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের এমিরিটাস অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, বিভাগীয় শহরগুলোতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার চ্যালেঞ্জটা তো বেশ বড় রকমের। কেননা, এখানে অনেক পরিক্ষার্থীর পরীক্ষা গ্রহণের ব্যবস্থাপনা করতে হবে। দ্বিতীয়ত, এ ধরনের পরীক্ষা নেওয়ার অভিজ্ঞতা বিশ্ববিদ্যালয়ের নেই। তবে আমার মনে হয়, এটা ছাড়া অন্য কোনো উপায়ও ছিলো না। করোনা পরিস্থিতিতে সব ছাত্রকে ঢাকায় নিয়ে আসা বিপজ্জনক হতো। 

প্রশ্নফাঁস ঠেকানো বা পরীক্ষার হলকে স্থানীয় প্রভাবমুক্ত রাখাও বড় চ্যালেঞ্জ উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় নিশ্চয়ই এসব বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা নেবে। 

উল্লেখ্য, সোমবার (২৩ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় বিভাগীয় শহরগুলোতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এর আগে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনস কমিটির একটি সভা থেকে এ ব্যাপারে সুপারিশ করা হয়েছিলো। তবে ভর্তি পরীক্ষার আবেদন গ্রহণ এবং পরীক্ষার সময়সূচি সম্পর্কে এখনও কিছু জানায়নি কর্তৃপক্ষ। 

বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রাব্বানী বলেন, ভর্তি কমিটির বৈঠকে বিভাগীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। এতে বিভাগীয় শহরের বিশ্বস্ত বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে পরীক্ষা নেওয়া কথা বলা হয়েছে যাতে এই পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থী নিজ নিজ জায়গা থেকে পরীক্ষা দিতে পারে। এখানে প্রশ্নপত্রের নিরাপত্তা দিতে হবে। এই পরীক্ষার ফলাফল যদি ভালো আসে, তাহলে ভবিষ্যত শিক্ষার্থীদের এমন পরিস্থিতিতে চাপ ও দুশ্চিন্তা মুক্ত রাখতে পারবো।   

বিভাগীয় শহরে ভর্তি পরীক্ষার চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিকল্পনা কী- এমন প্রশ্নের জবাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, মাত্রই সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাই এ বিষয়ে বলা কঠিন। ডিনস কমিটিতে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা হলে বিস্তারিত জানা যাবে। উপাচার্য মহোদয় বিষয়টি দেখছেন। 

উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, গতকালের (২৩ নভেম্বর) বৈঠকে প্রত্যেক ইউনিটে কারা সমন্বয় করবেন, সেই দায়িত্ব বন্টন করে দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়গুলো নিয়ে তারা পরিকল্পনা করবেন।  


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর