শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৭ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:২৪

প্রথম ধাপে উপজেলা ভোট তিন বিভাগে

গোলাম রাব্বানী

প্রথম ধাপে উপজেলা ভোট তিন বিভাগে

এবার পাঁচ ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। প্রথম ধাপের ভোট হবে ৮ অথবা ৯ মার্চ এবং দ্বিতীয় ধাপ ১৮ মার্চ, তৃতীয় ধাপ  ২৪ মার্চ,  চতুর্থ ধাপ ৩১ মার্চ ও পঞ্চম ধাপের ভোট রমজানের পর করার পরিকল্পনা নিয়েছে কমিশন। এ বিষয়ে আগামী ৩ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত নেবে। ওইদিন প্রথম ও দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হতে পারে। ইসির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, প্রথম ধাপে রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অর্ধেক জেলার সব উপজেলায় ভোটগ্রহণ করা হবে। এই ধাপে ভোটগ্রহণের জন্য প্রাথমিক তালিকায় ৬৯টি উপজেলা রাখা হয়েছে। এ ছাড়া দেশের যেসব উপজেলা পরিষদের  মেয়াদ ২১ মার্চের মধ্যে শেষ হবে, সেগুলোয়ও একই দিন ভোটগ্রহণ করা হবে। দ্বিতীয় ধাপে ১৮ মার্চ ১২৫টি উপজেলায়, তৃতীয় ধাপে ২৪ মার্চ ১১১টি এবং ৩১ মার্চ চতুর্থ ধাপে ১৫৯টি উপজেলায়  ভোটগ্রহণের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে। রমজানের পর পঞ্চম ধাপে জুনের দিকে ১৭টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। জানা গেছে, দ্বিতীয় ধাপে রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও খুলনা বিভাগের অর্ধেকের বেশি জেলার সব উপজেলাতে ভোট হবে। এ ছাড়া যেসব উপজেলার মেয়াদ ২৬ মার্চ শেষ হবে সেগুলোতেও এই ধাপে ভোট হবে। তৃতীয় ধাপে খুলনা, রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অবশিষ্ট জেলার সব উপজেলায় ভোট হবে। এ ছাড়া যেসব উপজেলার মেয়াদ ৩০ মার্চ শেষ হবে সেগুলোর নির্বাচনও এ দিন অনুষ্ঠিত হবে। চতুর্থ ধাপে ঢাকা ও বরিশাল বিভাগের সম্পূর্ণ জেলা এবং চট্টগ্রাম বিভাগের বাকি জেলার সব উপজেলায় ভোটগ্রহণ করা হবে। সেইসঙ্গে যেসব উপজেলার মেয়াদ ১৯ জুনের মধ্যে শেষ হবে  সেগুলোর নির্বাচনও চতুর্থ ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। যেসব পরিষদের প্রথম সভা ২০১৪ সালের ২০ জুনের পর অনুষ্ঠিত হয়েছিল  সেগুলোতে ঈদের পর ভোট হবে। এ ছাড়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া বা হওয়ার চেষ্টা এবং অন্যান্য কারণে ৩২ জন উপজেলা চেয়ারম্যান মেয়াদ শেষ হওয়ার আগেই পদত্যাগ করেছেন। ওই সব উপজেলায় প্রথম ধাপে ভোট হতে পারে। ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ জানান, সারা দেশে ৫ ধাপে উপজেলা পরিষদের নির্বাচন হবে। প্রথম ধাপের ভোট হবে ৮/৯ মার্চ। ৭-৮ দিন পর পর দ্বিতীয়, তৃতীয় ও চতুর্থ ধাপের ভোট হবে। পঞ্চম ধাপের  ভোট হবে পরীক্ষা ও রমজানের ঈদের পর। দেশে বর্তমানে ৪৯২টি উপজেলা পরিষদ রয়েছে। এর মধ্যে ৪৮১ উপজেলায় ভোট হবে। সর্বশেষ ২০১৪ সালের মার্চ-মে মাসে ছয় ধাপে ভোট হয়েছিল। উপজেলা ভোটেও ব্যবহার হবে ইলেকট্রনিক  ভোটিং মেশিন। জেলার সদর উপজেলায় পুরোপুরি ইভিএম ব্যবহার করা হবে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর