Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৯ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ জুলাই, ২০১৯ ০২:০১

সুন্দরবনে বিদ্যুৎ কেন্দ্র করতে ইন্ধন জোগাচ্ছে সরকার

--- ড. ইফতেখারুজ্জামান

নিজস্ব প্রতিবেদক

সুন্দরবনে বিদ্যুৎ কেন্দ্র করতে ইন্ধন জোগাচ্ছে সরকার

সুন্দরবনকে ঘিরে বিদ্যুৎ কেন্দ্র এবং বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়নে ভারত ও চীনের চেষ্টায় ইন্ধন জোগাচ্ছে সরকার মন্তব্য করেছেন ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ-টিআইবির নির্বাহী পরিচালক ড. ইফতেখারুজ্জামান।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, দেশে কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপনে প্রতিবেশী ভারত ও চীনের ‘স্বার্থের দ্বন্দ্ব’ রয়েছে। বাংলাদেশে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র করার জন্য তারা মরিয়া। তারা নিজেদের দেশে কয়লা থেকে সরে গিয়ে ভিন্নতর ‘সোর্স অব এনার্জির’ মাধ্যমে বিদ্যুৎ উৎপাদনে চলে যাচ্ছে। ‘সদ্য সমাপ্ত ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্য কমিটির সভা, উপকূল ও সুন্দরবনের ভবিষৎ এবং আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটি। ইফতেখারুজ্জামান আরও বলেন, আন্তর্জাতিকভাবে আমাদেরও অঙ্গীকার আছে যে, পরিবেশ দূষণ কমিয়ে আনব, কিন্তু তাদের (ভারত-চীন) স্বার্থের বিষয়টি দেখে আমাদের ওপর কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রে চাপিয়ে দিচ্ছে, তা আবার সুন্দরবনকে ঘিরে করা হচ্ছে। কাজেই এটা অত্যন্ত দুঃখজনক বিষয় যে, সরকার সেটা মেনে নিচ্ছে, সরকার সেখানে ইন্ধন জোগাচ্ছে। ইফতেখারুজ্জামান বলেন, সরকার ইউনেস্কোর কাছে যেসব অঙ্গীকার করেছে সেগুলো বাস্তবায়নে সুনির্দিষ্ট ও সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।

এ জন্য দেশবাসী ও সংশ্লিষ্ট অংশীজনকে সম্পৃক্ত করতে হবে। এর মাধ্যমে সুন্দরবন ঘিরে পরিবেশগত প্রভাব মূল্যায়ন ও কৌশলগত পরিবেশ সমীক্ষা করে ইউনেস্কোর কাছে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে রিপোর্ট দিতে হবে। ইতিমধ্যে যেসব প্রকল্প সেখানে চলমান রয়েছে সেগুলো স্থগিত করতে হবে। পরিবেশের প্রভাব মূল্যায়ন এবং কৌশলগত পরিবেশ সমীক্ষায় যদি মূল্যায়নে আসে পরিবেশের কোনো ক্ষতি হবে না, সুন্দরবনের ক্ষতি হবে না, উপকূলের ক্ষতি হবে না, তাহলে উন্নয়ন প্রকল্প আরও ১০টি হোক সে ক্ষেত্রে আমাদের কোনা আপত্তি থাকবে না।

সংবাদ সম্মেলনে সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আবদুল মতিন, কমিটির সদস্য শরীফ জামিল, সিপিবির নেতা রুহিন হোসেন প্রিন্সও বক্তব্য দেন।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর