শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৭ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৭ এপ্রিল, ২০২০ ০০:০৫

মানুষের পাশে নেই এনজিও ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো

নজরুল মৃধা, রংপুর

মানুষের পাশে নেই এনজিও ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো

রংপুর বিভাগের দেড় কোটির ওপর মানুষ করোনা আতঙ্কে। অঘোষিত লকডাউনে এ বিভাগের প্রায় অর্ধলাখ শ্রমজীবী ও নিম্ন আয়ের মানুষ চরম বেকায়ায় রয়েছেন। অসহায় এসব মানুষের সাহায্যে সরকার, রাজনীতিবিদ ও বিভিন্ন ব্যবসায়ী সংগঠন এগিয়ে এলেও এনজিও এবং মানবাধিকার সংগঠনগুলোকে এখনো মাঠে দেখা যায়নি। তারা এখনো অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারেনি। তবে ব্র্যাক বিভাগীয় প্রশাসনের কাছে গত রবিবার ক্ষতিগ্রস্তদের একটি তালিকা চেয়েছে। বিভাগীয় ও জেলা প্রশাসন প্রাথমিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের তালিকা করে সাধ্যমতো ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দেওয়ার চেষ্টা করছে। বিভাগীয় প্রশাসন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত রবিবার ব্র্যাকের প্রতিনিধি এসে প্রশাসনের কাছে ক্ষতিগ্রস্তদের একটি তালিকা চান। এ ছাড়া দু-একটি এনজিও মোবাইল ফোনে প্রশাসনের কাছে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষ সম্পর্কে জানতে চেয়েছে। তারা এখনো কোথাও ত্রাণ বিতরণ করেছে এ ধরনের কোনো খবর বিভাগীয় প্রশাসন কার্যালয়ে নেই। অন্যদিকে রংপুর বিভাগে অর্ধশতের ওপর মানবাধিকার সংগঠন রয়েছে। করোনার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে এখন পর্যন্ত এসব সংগঠনকে দাঁড়াতে দেখা যায়নি। দেশের এই দুঃসময়ে এনজিও এবং মানবাধিকার সংগঠনগুলো দূরে থাকায় এদের সম্পর্কে সাধারণ মানুষের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার কে এম তারিকুল ইসলাম বলেন, ‘এখন পর্যন্ত কোনো এনজিও কিংবা মানবাধিকার সংগঠন করোনার প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়িয়েছে বলে আমার জানা নেই। কবে নাগাদ ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে এনজিওগুলো দাঁড়াবে তা তারাই জানে।’


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর