শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ অক্টোবর, ২০২০ ২৩:৫৪

ইউজিসির প্রতিবেদনকে একপেশে দাবি রাবি উপাচার্যের

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম আবদুস সোবহান ও রাবি প্রশাসনের বিরুদ্ধে দুর্নীতির তদন্ত প্রতিবেদন দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। এই তদন্ত প্রতিবেদনটি একপেশে ও পক্ষপাতমূলক উল্লেখ করে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলোর বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন উপাচার্য। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে গতকাল আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন উপাচার্য। তার দাবি-বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক মিজানউদ্দিনের বিভিন্ন দুর্নীতি খতিয়ে দেখার উদ্যোগ নেওয়ায় তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে তদন্ত কমিটির প্রধান ইউজিসি সদস্য অধ্যাপক দিল আফরোজা বেগম বলেন, ‘আমরা সবকিছু আমলে নিয়ে তদন্ত প্রতিবেদন দিয়েছি। এখন উপাচার্যের কিছু বলার থাকলে তিনি শিক্ষামন্ত্রণালয়ে দিতে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই অধ্যাপক আবদুস সোবহান বলেন, ‘ইউজিসির তদন্ত কমিটি যে প্রতিবেদন জমা দিয়েছে, সেটা সম্পর্কে উপাচার্য হিসেবে আমি অবহিত নই। তবে ইউজিসি তদন্ত কমিটির সদস্যদের বরাত দিয়ে বিভিন্ন জাতীয় ও স্থানীয় গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। প্রকাশিত খবরগুলো জনমনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি-বিধান সম্পর্কে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে পারে। এজন্য দেশের মানুষ ও সরকারের কাছে আমার অবস্থান স্পষ্ট করার অনুভব করছি।’

উপাচার্য বলেন, ‘যেকোনো আমলযোগ্য অভিযোগের তদন্ত বাঞ্ছনীয়। আমি তদন্তের বিরুদ্ধে নই। আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগগুলো যথাযথ হলে তদন্তে আমার একশতভাগ সম্মতি আছে। তবে সেই তদন্ত হতে হবে যথাযথ প্রক্রিয়া মেনে আইনসিদ্ধভাবে গঠিত পক্ষপাতহীন তদন্ত কমিটির মাধ্যমে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই বিষয়ে আমি গত ৯ সেপ্টেম্বর ইউজিসির চেয়ারম্যানকে চিঠি দিয়ে জানিয়েছিলাম। আমি আশা করেছিলাম সেটি বিবেচনায় নিয়ে চেয়ারম্যান পরবর্তী পদক্ষেপ নেবেন। কিন্তু তা বাস্তবে ঘটেনি। বরং আমি মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পেরেছি, ইতিমধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেওয়া হয়েছে। প্রতিবেদনটি একপেশে এবং পক্ষপাতমূলক। সুতরাং আমার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানাচ্ছি।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক চৌধুরী মো. জাকারিয়া, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক এমএ বারী, প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান, জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক ড. আজিজুর রহমানসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর