শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:২৬

বৃষ্টি আর ড্রেনের পানিতে একাকার দুটি স্কুল মাঠ

দিনাজপুর প্রতিনিধি

বৃষ্টি আর ড্রেনের পানিতে একাকার দুটি স্কুল মাঠ

ড্রেনের পানি আর বৃষ্টির পানিতে একাকার দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার ঝাড়বাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় এবং ঝাড়বাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ। দীর্ঘদিনের এ জলাবদ্ধতা নিরসনে নেওয়া হয়নি কোনো উদ্যোগ। ফলে ব্যাহত হচ্ছে পাঠদান। কমছে শিক্ষার্থী উপস্থিতি। জানা যায়, বর্ষা মৌসুম ছাড়াও যে কোনো সময় সামান্য বৃষ্টি হলেই স্কুল দুটির মাঠ তলিয়ে যায়। পানি নিষ্কাশনে একটি ড্রেন করা হলেও তা কাজে আসেনি। শিক্ষকরা জানান, এ সমস্যা সমাধানে প্রয়োজন স্কুলের দক্ষিণ দিক দিয়ে আরেকটা ড্রেন ও মাঠটি আরেকটু উঁচু করা। বিষয়টি সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে বলেও জানান তারা। গত সোমবার দুপুরে বৃষ্টিতে স্কুল দুটির ক্যাম্পাস তলিয়ে যায়। বিদ্যালয় মাঠে জমে হাঁটু পানি। ময়লা পানি শ্রেণিকক্ষে ঢোকায় এদিন শিক্ষার্থীদের ক্লাস করতে হয়েছে ভিজে ভিজে। অনেকে আক্রান্ত হচ্ছেন পানিবাহিত নানা রোগে। জলাবদ্ধতার কারণে একই দুটি স্কুলের প্রায় এক হাজার শিক্ষার্থী এ দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। প্রাথমিকের মারুফ হাসান মুনসহ কয়েক শিক্ষার্থী জানান, বৃষ্টির সময় বিদ্যালয়ে আসতে পারি না। মাঠে খেলাধুলা করতে পারি না। পাঠদান কখনো পানির মধ্যে করতে হয়। জলাবদ্ধতার কারণে মাঠে চলাফেরা করা যায় না। ময়লার দুর্গন্ধ আর পোকামাকড়ের ভয়ে বিদ্যালয়ে পড়াশোনায় মন বসে না। এ পানিতে চুলকানি হয়। ঝাড়বাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহিদ আলী জানান, বর্ষা এলেই শিশুরা দুর্ভোগের শিকার হয়। এ সময় অভিভাবকরাও শিশুদের স্কুলে পাঠাতে চান না। বারবার সংশ্লিষ্টদের জানানো হলেও তারা শুধু আশ্বাস দেয়। সমস্যার সমাধান হয় না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর