শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ জুলাই, ২০২০ ০৩:৪৭

সুন্দরবনে অপরাধ দমনে একযোগে পুলিশের বিশেষ অভিযান

বাগেরহাট প্রতিনিধি

সুন্দরবনে অপরাধ দমনে একযোগে পুলিশের বিশেষ অভিযান

সুন্দরবনের বনদস্যু, বিষদস্যু, বন্যপ্রাণী শিকারিসহ সব ধরনের অপরাধ দমনে বিশেষ অভিযান শুরু করেছে পুলিশ। পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশনা অনুযায়ী শুক্রবার বিকাল থেকে সুন্দরবনে বাংলাদেশের ৬ হাজার ১৭ বর্গ কিলোমিটার অংশের জল ও স্থল ভাগে এই বিশেষ অভিযান শুরু করেছে।

এর আগে গত ৩ জুলাই বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় মোংলা গিয়ে এই বিশেষ অভিযানের মহড়া চালান। বাগেরহাটের শরণখোলা ও মোংলা পুলিশের ৪টি দল একযোগে এই অভিযান চালাচ্ছে। পুলিশ সদর দপ্তরের পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত সুন্দরবনে এই অভিযান চলবে বলে জানিয়েছে বাগেরহাট পুলিশ।

সুন্দরবনে বাংলাদেশ অংশে বনের রাজা রয়েল বেঙ্গল টাইগার, চিত্রল হরিণসহ ৩৭৫ প্রজাতির বন্যপ্রাণী, সুন্দরী, গেওয়া, গরান, পশুরসহ ১৮৪ প্রজাতির উদ্ভিদরাজি এবং ১ হাজার ৮৭৪. ১ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ৪৫০টি নদ-নদী ও খালে ৬ প্রজাতির ডলফিনসহ ২৯২ প্রজাতির মৎস্য সম্পদ রক্ষায় পুলিশ একযোগে এই অভিযান শুরু করেছে।

শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসকে আব্দুল্লাহ আল সাইদ জানান, পুলিশ মহাপরিদর্শকের নির্দেশে তারা সুন্দরবনের অপরাধ দমনে বিকালে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জে অফিস থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের অভিযান শুরু হয়। শরণখোলা পুলিশের ২০ জন সদস্য দুটি দলে ভাগ হয়ে এই অভিযানে অংশ নিয়েছে।

মোরেলগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রিয়াজুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি দল সুন্দরবনের ভোলা এলাকায় এবং শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নেতৃত্বে সুন্দরবনের সুপতি এলাকায় অভিযান চলমান রয়েছে। একই সাথে মোংলা থানা পুলিশও বিশেষ অভিযান শুরু করেছে। পুলিশ সদর দপ্তরের পরবর্তী নির্দেশ না পাওয়া পর্যন্ত সুন্দরবনে পুলিশের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানায় পুলিশ।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর