শিরোনাম
প্রকাশ : ৩১ আগস্ট, ২০২১ ২১:২১
প্রিন্ট করুন printer

কুড়িগ্রামে ‘অগ্রদূত’র ৫০ বছর পূর্তি প্রদর্শনী উদ্বোধন

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

কুড়িগ্রামে ‘অগ্রদূত’র ৫০ বছর পূর্তি প্রদর্শনী উদ্বোধন
কুড়িগ্রামে ‘অগ্রদূত’র ৫০ বছর পূর্তি প্রদর্শনী উদ্বোধন।
Google News

কুড়িগ্রামের রৌমারী থেকে প্রকাশিত হাতে লেখা সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘অগ্রদূত’র ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে এক প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে রৌমারী উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে ‘উত্তরবঙ্গ জাদুঘর’ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন এমপি এই প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।

এর আগে, সকালে পত্রিকাটির মোড়ক উন্মোচন উপলক্ষে এক আলোচনা সভার আয়োজন করে উত্তরবঙ্গ জাদুঘর। রৌমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল ইমরানের সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেন।

উত্তরবঙ্গ জাদুঘরের বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান এসএম আব্রাহাম লিংকনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রৌমারী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ আব্দুল্লাহ, বেসরকারি সংস্থা সলিডারিটির নির্বাহী পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা এসএম হারুন অর রশীদ লাল, খুলনা গণহত্যা জাদুঘরের সাবেক পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম বাবলু, রিভারাইন পিপলের মহাসচিব ও সাংবাদিক শেখ রোকন ও কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট আহসান হাবিব নীলু।

এছাড়াও সশরীরে উপস্থিত হতে না পেরে মোবাইলে সংযুক্ত হয়ে বক্তব্য রাখেন সেক্টর কমান্ডার্স ফোরামের মহাসচিব ও বরেণ্য সাংবাদিক বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন হাবিব। পরে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে আয়োজিত ভ্রাম্যমাণ প্রদর্শনীর স্টল ঘুরে দেখেন প্রতিমন্ত্রীসহ অতিথিরা।

‘উত্তরবঙ্গ জাদুঘর’র বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান এসএম আব্রাহাম লিংকন বলেন, আজিজুল হকের সম্পাদনায় প্রকাশিত অগ্রদূত পত্রিকাটি মহান মুক্তিযুদ্ধে রৌমারী এবং সমগ্র দেশের গৌরব গাঁথার অংশ। উত্তরবঙ্গ জাদুঘর ‘অগ্রদূত’ পত্রিকাটির দুর্লভ সকল কপি ও রৌমারী রণাঙ্গনের অন্যান্য কতিপয় ছবি নিয়ে প্রথমবারের মতো ভ্রাম্যমাণ প্রদর্শনীর আয়োজন করে। এতে রৌমারীর সাধারণ জনগণসহ নতুন প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধে মুক্তাঞ্চলখ্যাত রৌমারীর গৌরব গাঁথা ইতিহাস সম্পর্কে জানতে পারবেন।

উল্লেখ্য, একাত্তর সালের ৩১ আগস্ট রৌমারী থেকে প্রথম প্রকাশিত হয় ‘অগ্রদূত’ নামের হাতে লেখা একটি সাপ্তাহিক পত্রিকা। সাইক্লোস্টাইল করে নিয়মিত প্রকাশিত হতো পত্রিকাটি। পত্রিকাটির শ্লোগান দেওয়া হয় ‘স্বাধীন বাংলার মুক্ত অঞ্চলের সাপ্তাহিক মুখপত্র’। এতে যুদ্ধকালীন নানা সংবাদ, মতামত, সাহিত্য ছাড়াও মুক্তিযুদ্ধে ব্রহ্মপুত্র ও অন্যান্য নদীর ভূমিকা সংক্রান্ত দলিল এ সংবাদপত্রটি। রৌমারীর প্রয়াত শিক্ষাবিদ, রাজনৈতিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক আজিজুল হক পত্রিকাটির সম্পাদনা করেন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর