Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:২৮
আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১১:৩০

আর মাত্র একদিন, যোগাযোগ না হলে চূড়ান্তভাবে উধাও চন্দ্রযান-২

অনলাইন ডেস্ক

আর মাত্র একদিন, যোগাযোগ না হলে চূড়ান্তভাবে উধাও চন্দ্রযান-২

প্রত্যাশা বাড়ছিল, হয়ত হারিয়ে যাওয়া ভারতের চন্দ্রযান-২ এর ল্যান্ডার বিক্রমকে খুঁজে দেবে নাসা। এখনও সেই স্বপ্ন সফল হয়নি। তবে চাঁদের মাটিতে যেখানে বিক্রমের অবতরণের কথা ছিল, সেই এলাকার ছবি তুলে নিয়ে এল নাসার মহাকাশযান।

বৃহস্পতিবার নাসার এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা জানিয়েছেন চন্দ্রপৃষ্ঠের যে ছবি তোলা হয়েছে, সেখানেই সফট ল্যান্ডিং সফল হলে নামত বিক্রম ল্যান্ডার। নাসার লুনার রিকনাসান্স অরবিটার বা এলআরও মহাকাশযান এই দুটি ছবি তোলে। ১৭ সেপ্টেম্বর ছবি দুটি তোলা হয়।

যে সময় ছবি দুটি তোলা হয়, তখন চাঁদের ওই পৃষ্ঠে ঘন অন্ধকার। ফলে বিক্রম কোথায় রয়েছে, তার হদিস সঠিকভাবে মেলেনি। এলআরও মিশনের ডেপুটি প্রজেক্ট সায়েন্টিস্ট জন কেলার পিটিআইকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এই তথ্যই দেন।

তবে ওই অরবিটার যে ছবি দুটি পাঠিয়েছে, তা খুঁটিয়ে দেখার কাজ চলছে। ২১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চালানো হচ্ছে বলে নাসা জানিয়েছে। কারণ তারপরই ওই এলাকা ঘন অন্ধকারে চলে যাবে। তখন আর কোনওভাবেই বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ সম্ভব নয়।

নাসার এলআরও টিম জানিয়েছে, আগের ছবিগুলোর সঙ্গে নতুন ছবিগুলোর তুলনা করে দেখা হচ্ছে। তবে বিজ্ঞানীদের আশা ওই ছায়াঘেরা জায়গাতেই কোথাও রয়েছে বিক্রম। নয়তো যেখানে বিক্রম নেমেছে, সেই এলাকার ছবি তোলেনি নাসার অরবিটার।

২১ সেপ্টেম্বরের পর ফের ছবি তোলার চেষ্টা করা হবে ১৪ অক্টোবরের পর। কারণ তখন ওই এলাকা আলোকিত হবে ও স্পষ্ট ছবি পাওয়া যাবে বলে মনে করছে নাসা।

এদিকে ইসরো জানাচ্ছে, অবতরণের পর ১৪ দিনের মধ্যে বিক্রম ও রোভার প্রজ্ঞানের কার্যক্ষমতা থাকবে, সেক্ষেত্রে বিক্রমের সঙ্গে যোগাযোগ করার আশা প্রায় ক্ষীণ।

ইসরোর পক্ষ থেকে খবর, লুনার নাইটস চলাকালীন চাঁদের দক্ষিণ মেরুর তাপমাত্রা মাইনাস ২০০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকে। সেই পরিস্থিতিতে কাজ করার মত সক্ষম নয় বিক্রম। ফলে ২১ সেপ্টেম্বরের পর ১৪ দিনের জন্য লুনার নাইটস শুরু হলে বিক্রমের কোনও যন্ত্রই আর কাজ করবে না। স্থায়ী ক্ষতির আশঙ্কা থেকে যাচ্ছে। তাই একদিনের মধ্যে যোগাযোগ করা না গেলে বিক্রমকে চিরতরে হারাতে চলেছে ভারত।

সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য