শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ৩ মার্চ, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ মার্চ, ২০২১ ০১:১০

অমুক্তিযোদ্ধাদের মুক্তিযোদ্ধা বানিয়েছে বিএনপি সরকার

--- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী

সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, বিএনপি সরকার অমুক্তিযোদ্ধাদের মুক্তিযোদ্ধা বানিয়েছে। তারা স্বাধীনতা বিরোধীদের ক্ষমতার অংশীদার করে বাংলাদেশে একটি কালো অধ্যায়ের সৃষ্টি করেছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর বাংলাদেশকে মিনি পাকিস্তান বানানোর চেষ্টা করেছে। জয় বাংলা স্লোগানের পরিবর্তে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ স্লোগান চালু করেছে। আর শেখ হাসিনার আমলে প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবার সঠিক মূল্যায়ন পেয়েছে। শুধু তাই নয় সব ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্নয়নের মহাসড়কে নিয়ে গেছে বাংলাদেশকে। রক্তধারা ৭১ এর আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধ ও উত্তরসূরিদের করণীয় শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন। গতকাল বিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয় এই আয়োজন।

 সংগঠনের সভাপতি নাদীম কাদিরের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য এ কে এম আহসানুল হক ও আরমা দত্ত। আলোচক ছিলেন লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) কাজী সাজ্জাদ আলী জহির, ড. মেঘনা গুহ ঠাকুরতা, সংগীতশিল্পী সাদী মুহম্মদ তকিউল্লাহ, এস এম আব্রাহাম লিংকন প্রমুখ। মুক্তযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ পৃথিবীর কাছে বর্তমানে উন্নয়নের রোল মডেল। এই উন্নয়ন সহ্য করতে না পেরে স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তি প্রধানমন্ত্রী ও বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। পাকিস্তানের দোসরদের প্রতিহত করতে মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারকে এগিয়ে আসতে হবে। মন্ত্রী বলেন, ১৩০টি দেশ এখনো টিকা পায়নি, সেদিক থেকে আমরা এগিয়ে আছি। জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা চিন্তা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টিকার ব্যবস্থা করেছে। নাদীম কাদির বলেন, যুদ্ধাপরাধী ও তাদের দোসররা দীর্ঘদিন ক্ষমতায় থাকার কারণে মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃত করা হয়েছিল। রক্তধারা-৭১ জেলা উপজেলা ও গ্রাম পর্যায়ে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর চেতনাকে ছড়িয়ে দেবে।


আপনার মন্তব্য